আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারে স্থান পেয়েছেন বরগুনার এম এ মুন্ঈম সাগর

মো: সাগর আকন,বরগুনা: আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার ২০২০ এর চূড়ান্ত তালিকায় স্থান পেয়েছেন বরগুনার এম এ মুন্ঈম সাগর (১৬)। ৪২টি দেশের ৪২ জন শিশু-কিশোরের মধ্যে এ তালিকায় স্থান পাওয়া একমাত্র বাংলাদেশি তিনি।

সামাজিক উন্নয়ন, সমাজের পরিবর্তন, শিশু অধিকার, দারিদ্র্যদূরীকরণ এবং ক্ষুধানিবারণসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য এ পুরস্কার প্রদান করে কিডস রাইটস ফাউন্ডেশন নামে নেদারল্যান্ডসের একটি সংস্থা।

প্রাথমিকভাবে ১৮৬টি দেশের পাঁচ শতাধিক শিশু-কিশোরকে এ পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়। এরপর পর্যায়ক্রমে বাছাই করা হয় ৮৬ জনকে। চূড়ান্ত পর্যায়ে ৪২ জনকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। সেখান থেকে একক কিংবা যৌথভাবে এ পুরস্কার ঘোষণা করা হবে আগামী ১৩ নভেম্বর।

এ পুরস্কার ঘোষণার জন্য অনলাইনে ভোটগ্রহণও শুরু করেছে সংস্থাটি। তাই এম এ মুন্ঈম সাগরকে ভোট প্রদান করতে চাইলে

#ChildrensPeacePrize

এ লেখাটি শুধু পোস্ট করতে হবে। একটি পোস্টের জন্য মুন্ঈম সাগরের পক্ষে একটি করে ভোট জমা হবে। এদিকে মুন্ঈম সাগরের পক্ষে প্রচারণার মাধ্যমে ভোট সংগ্রহের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বরগুনা প্রেসক্লাব।

এম এ মুন্ঈম সাগর বরগুনা পৌরসভার কলেজ রোডের মুসলিমপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তার বাবার নাম শাহ্ মো. হুমায়ুন সগির এবং মায়ের নাম মনিরা বেগম। তার বাবা-মা উভয়ই সরকারি চাকরিজীবী। বরগুনা জিলা স্কুলের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া মুন্ঈম সাগর বর্তমানে অধ্যায়নরত আছেন ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণিতে।

জাতীয় সেরা সমাজকর্মী স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ড এবং জাতীয় সেরা স্কাউট মোটিভেটর অ্যাওয়ার্ডসহ ইতোমধ্যেই ১৫টি জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন মুন্ঈম সাগর। এছাড়াও তিনি জাপান সরকারের অধীনে একটি আন্তর্জাতিক পুরস্কারও পেয়েছেন।

মুন্ঈম সাগরের বাবা শাহ্ মো. হুমায়ুন সগির বলেন, ছোটবেলা থেকেই মুন্ঈম মানুষের প্রতি দরদী। অসহায় শিশুদের দেখলে তাদের সহযোগিতার জন্য এগিয়ে যেত। এখনও শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করে। তারই স্বীকৃতিস্বরূপ আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারে জন্য মনোনীত হয়েছে। সবাই আমার ছেলের জন্য দোয়া করবেন- যাতে আমার ছেলে বিজয়ী হতে পারে।

এ বিষয়ে বরগুনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মো. সালেহ বলেন, আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার ২০২০ এর চূড়ান্ত পর্যায়ে থাকা এম এ মুন্ঈম সাগর আমাদের গর্বিত করেছে। তার জন্য গর্বিত হয়েছে পুরো বাংলাদেশ। আমাদের প্রত্যাশা- এ বছর আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হবেন মুন্ইম সাগর। তাই আমরা তার পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে ভোট সংগ্রহের উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। এ জন্য দেশের সকল সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানাই।

এ বিষয়ে মুন্ঈম সাগর বলেন, কঠিন পরিশ্রম আর সবার সহযোগিতা এবং ভালোবাসায় আজ এ পর্যায়ে এসেছি আমি। এই পুরস্কারের জন্য আপনাদের প্রার্থনা আর একটি ভোট আমাকে চূড়ান্তভাবে মনোনীত করতে পারে। তাই একটি পোস্টের মাধ্যমে আমাকে ভোট দেয়ার অনুরোধ করছি সবাইকে।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...