আসছে আরো তিন শৈত্যপ্রবাহ

পিবিএ ডেস্ক: চলতি মাসে সারাদেশে তিনটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া বিভাগ।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকেই দেশের বিভিন্ন এলাকায় ঝরছে বৃষ্টি। ধীরে ধীরে বাড়ছে বৃষ্টির পরিমাণ। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শুক্রবারও সারাদিনই থেমে থেমে বৃষ্টি ঝরেছে। সেই সঙ্গে বাড়ছে শীতও।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, ৬ জানুয়ারি পর একটি এবং মাসের শেষ সপ্তাহে আরেকটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে। আর মাসের মাঝামাঝি সময়ে একটি মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

সামছুদ্দিন আহমেদ আরও বলেন, আবহাওয়ার পূর্বাভাস রয়েছে- বছরের প্রথম মাসের প্রথমার্ধেই দেশের অনেক স্থানে বৃষ্টিপাত হবে। আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাত আরও বাড়বে।

৬ জানুয়ারি থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ও রাতের তাপমাত্রা আরও কমে যাবে জানিয়ে সামছুদ্দিন বলেন, জানুয়ারি মাসে আরও দুটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। এছাড়া একটি মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

শৈত্যপ্রবাহ চলাকালে বিভিন্ন বিভাগের জেলাগুলোতে কনকনে শীত অনুভূত হবে। বৃষ্টিপাত হওয়ার পর তাপমাত্রা ধীরে ধীরে দেশের বিভিন্ন স্থানে নামতে শুরু করবে এবং শৈত্যপ্রবাহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিরাজমান থাকবে।

গ্রামাঞ্চলে শীতের তীব্রতা বেশি অনুভূত হবে। রাতের তাপমাত্র বা সর্বনিম্ন ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে তাকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। আর তাপমাত্রা ৬-৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি এবং তাপমাত্রা ৮-১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলে।

এবার তাপমাত্রা ৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলিসিয়াসের নিচে নামার আশঙ্কা দেখছেন কি না- এ প্রশ্নে সামছুদ্দিন বলেন, গত বছর রেকর্ডে ২ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমেছিল। এবারের বিষয়ে সুনির্দিষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না। আরও সপ্তাহখানেক পরে হয়তো বোঝা যাবে।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...