ইন্টারভিউয়ে ‘বেতন’ প্রসঙ্গে কথা বলবেন যেভাবে

পিবিএ ডেস্ক: আমাদের মাঝে অনেকেই আছেন যারা পড়াশুনো শেষ করে চাকুরী খুঁজছেন। চাকুরী পাওয়ার জন্য বরাবরই ইন্টারভিউ ফেস করতে হয়, আর এই ইন্টারভিউ করা হয় নানান প্রশ্ন। আর হরেক প্রশ্নের মাঝে সবথেকে কমন যে প্রশ্ন তা হলো বেতন।

বেতনের কথা জিজ্ঞাসা করাতে অনেকে ঘাবড়ে যান আর এই সুযোগে চাকরিদাতারা আপনার আত্মবিশ্বাসের পরীক্ষা নেন। সেই সাথে একটু কম বেতনে রাজি করানোর ফন্দি আঁটতে থাকেন। তাই ঘাবড়ে যাবেন না, কিভাবে ইন্টারভিউয়ে ‘বেতন’ প্রসঙ্গে কথা বলবেন তারই কিছু টিপস জানাবো আমরা আপনাকে।

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক ইন্টারভিউয়ে বেতন প্রসঙ্গে কথা বলবেন যেভাবেঃ

১। চাকরির ইন্টারভিউতে বেতন প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য আগে থেকেই মার্কেট রিসার্চ করুন। আপনার সমান দক্ষতা এবং পদমর্যাদায় যারা অন্য অফিসে চাকরি করছেন তারা কতো বেতন পাচ্ছেন সেই বিষয়ে জানার চেষ্টা করুন।

২। আপনার জীবনধারণ এবং সঞ্চয়ের জন্য কতো অর্থের প্রয়োজন সেটা হিসাব করুন। বেতনের প্রসঙ্গে কথা বলার সময় নিজের প্রত্যাশাকে গুরুত্ব দিন।

৩। ইন্টারভিউয়ের শুরুতেই বেতনের প্রসঙ্গ তুলবেন না। আগে নিজের সম্পর্কে ভালো ধারণা তৈরি করুন সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীদের মনে। নিজের দক্ষতা সম্পর্কে তাদেরকে জানান। চাকরির পদটির জন্য আপনিই কেন যোগ্য প্রার্থী, সেটা তাদেরকে বুঝিয়ে দিন। এরপর একদম শেষ পর্যায়ে বেতনের কথা তুলুন।

এছাড়াও বেতন প্রসঙ্গে কথা বলার সময় কৌশলী হতে হবে। আপনার আগের অর্জনগুলো সম্পর্কে জানাতে হবে। আপনার অভিজ্ঞতাগুলোকে কাজে লাগিয়ে কীভাবে কোম্পানির উন্নতি করা সম্ভব তা বুঝাতে হবে। মোট কথা, নতুন চাকরীটা নিয়ে আপনার উৎসাহ এবং আত্মবিশ্বাস দেখাতে হবে।

পিবিএ/ ্েকে

আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন