উত্তরায় নারী সাংবাদিকের আত্মহত্যার চেষ্টা

পিবিএ: রাজধানীর তুরাগ থানা এলাকায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এক নারী সাংবাদিক আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। বুধবার রাত আনুমানিক সাড়ে সাতটার দিকে তুরাগের বামনারটেক টিএস আর গার্মেন্টসের সামনের ভাড়াটিয়া বাসার নিচ তলায় এ ঘটনাটি ঘটে।

আত্মহত্যা চেষ্টা করা ওই নারী সাংবাদিক হলেন নাদিরা দিলরুবা। তিনি ঢাকা থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক অপরাধ বিচিত্রা( ম্যাগাজিন) পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি।
 বুধবার সন্ধ্যায় নাদিরা দিলরুবার নিজ ফেসবুক আইডিতে আত্মহত্যার হুমকি দিয়ে যে স্ট্যাটাস দেন তাতে একটি প্রতিষ্ঠিত গ্রুপের চেয়ারম্যান ও একজন অনলাইনের সাংবাদিককে দায়ী করে নাদিরা বলেন, আমার মৃত্যু পর তাদের দুজনের দাবি মতে জনগণের কাছে প্রমাণ হাজির করবে আমি পতিতা ও বহু পুরুষে আসক্ত, অশিক্ষিত, চাঁদাবাজ?

পরবর্তীতে স্ট্যাটাসটি ইংরেজি দৈনিক দ্যা ডেইলি অবজারভার পত্রিকার অনলাইন প্রতিবেদকের নজরে এলে বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে জানানো হয় উত্তরা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার শচীন মল্লিককে। পরে স্থানীয় সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম, আশিকুজ্জামান ও তুরাগ থানা পুলিশ ছুটে যান সেখানে। পার্শ্ববর্তী ভাড়াটিয়া ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্ধার করা হয় নাদিরা দিলরুবাকে।

নাদিরা জানান, একমাত্র মেয়েকে নিয়ে সততার সাথে বাঁচতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সেই আমাকে পতিতা বলে আখ্যায়িত করে অনলাইনে সংবাদ প্রকাশ করলো কথিত এক অনলাইন পত্রিকার নামধারী সম্পাদক। কি প্রমাণ আছে তার কাছে আমার অপকর্মের? দীর্ঘদিন অপরাধ বিষয়ক সাংবাদিকতা করার কারণে আজ আমি নোংরা অপসাংবাদিকতার শিকার।

এ ব্যাপারে তুরাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। এছাড়া আইসিটি আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

 

পিবিএ/জেআই

আরও পড়ুন...