উত্তরায় পুলিশ হেফাজতে এক ব্যক্তির মৃত্যুর অভিযোগ

রাজধানীর উত্তরা পূর্ব থানায় পুলিশ হেফাজতে থাকা হিরণ (৫১) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার (৩০ নভেম্বর) বিকেল সোয়া ৫টার দিকে থানা হাজতে হিরণ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে উদ্ধার করে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

হিরণের ভাই বাদল মিয়া বলেন, আমাদের নিকুঞ্জে-২ এ ইলেকট্রনিক্সের ব্যবসা আছে। পুলিশের অভিযোগ, আমার ভাই রাজউকে মারামারি করেছেন। পরে পুলিশ আজ বিকেলে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। থানা হেফাজতেই আমার ভাই মারা যান। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আমার ভাই হত্যার বিচার চাই।

তিনি আরও বলেন, আমার ভাই সম্পূর্ণ সুস্থ ছিলেন। শারীরিকভাবে কোনো সমস্যা ছিল না।

এ বিষয়ে উত্তরা পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল ইসলাম বলেন, রাজনৈতিক বিরোধের জেরে মারামারির ঘটনায় বুধবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে হিরণকে আটক করে থানায় আনা হয়। মাগরিবের আযানের সময় হাজতখানায় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে উদ্ধার করে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ইসিজি করে চিকিৎসক জানিয়েছেন, হিরণ হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন।

হিরণকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, আমরা তাকে কোনো নির্যাতন করিনি। সিসিটিভি ফুটেজ আছে, সেখানে তার প্রমাণ রয়েছে।

আরও পড়ুন...