উলিপুরে পরিবারের লোকজনকে অচেতন করে দূর্ধর্ষ চুরি

পিবিএ,উলিপুর: কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক হিন্দু পরিবারের লোকজনকে অচেতন করে ১২ ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে দূর্বৃত্বরা। ঘটনাটি ঘটেছে, শনিবার গভীর রাতে উলিপুর পৌরসভার জোনাইডাঙ্গা গ্রামের হাসপাতাল পাড়ায়। এ ঘটনায় ওই পরিবারের অসুস্থ্য তিনজনকে উলিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় গৃহকর্তা স্বপন সরকার, স্ত্রী ও কন্যাসহ চা খাওয়ার পর শারীরিকভাবে অসুস্থ্যতা অনুভব করে ঘুমিয়ে পড়েন। পরে গৃহকর্তার ছোট ভাই ব্যবসায়ী রতন সরকার রাতে বাড়িতে ফিরে সবাইকে ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে নিজের খাবার খেয়ে তিনিও ঘুমিয়ে পড়েন। এরপর রাতের কোন এক সময় দূর্বৃত্বরা গৃহকর্তার ছোট রতন সরকারের দরজার ছিটকিনি ভেঙ্গে দূর্বৃত্বের দল তার শয়ন ঘরে প্রবেশ করে। এরপর তারা ঘরের কাঠের ওয়ার ড্রপ ভেঙ্গে ১২ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৩টি মোবাইল ফোন ও নগদ ১ লাখ ৩৮ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। এসময় দূর্বৃত্বরা ৩ টি রুমের আসবাবপত্র, ড্রয়ারে রাখা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তছনছ করে চলে যায়।

গৃহকর্তা স্বপন সরকার বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যায় চা খাওয়ার পর শারীরিকভাবে অসুস্থ্যতা অনুভব করায় কখন ঘুমিয়ে পড়ি জানি না। সকালে উঠে ঘরের জিনিষপত্র তছনছ দেখে খোঁজ খবর নিয়ে দেখি ১২ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৩ টি মোবাইল ফোন ও ব্যবসার নগদ ১ লাখ ৩৮ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে।
উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। ##

পিবিএ/রোকনুজ্জামান মানু/বিএইচ

আরও পড়ুন...