এসব ট্রোল আমি কেয়ার করি না : সানাই

পিবিএ ঢাকা : বর্তমান সময়ে মিডিয়ার আলোচিত মুখ সানাই। কাজ করে চলেছেন সমান তালে। দিন দিন তার ব্যস্ততা বাড়ছে। কাজ এবং মিডিয়ার নানা প্রসঙ্গে কথা হলো তার সঙ্গে। বার্তা সংস্থা পিবিএ-এর পক্ষ থেকে তার সঙ্গে কথা বলেছেন জিয়াউল জিয়া-

 

 

প্রশ্ন : বর্তমান ব্যস্ততা সম্পর্কে জানবো-

সানাই : বেশ কিছু মিউজিক ভিডিওর কাজ করলাম। সংখ্যায় অন্তত ১৮টা। ‘ময়নার ইতিকথা’ এবং ‘সুপ্ত আগুন’ নামে দু’টো ফিল্মেও কাজ শেষ হলো। নতুন ফিল্মের বিষয়ে কথা চলছে। দেখা যাক কি হয়!

প্রশ্ন : মিউজিক ভিডিওর ক্ষেত্রে আমাদের বাজেট খুবই কম। সঙ্গত কারণেই মানও সন্তোষজনক নয়। এক্ষেত্রে আপনার কাজের অভিজ্ঞতা কেমন ?

সানাই : প্রথমত বলবো যে, আমি যে গানগুলো করেছি সেগুলোর মান ভালই হবে। গানগুলো শ্রুতিমধুর। আমি তো মডেল হিসেবে প্রোপার এক্সপ্রেশন দেওয়ার চেষ্টা করেছি। এডিটের পর আশাকরি ভাল কিছুই দাঁড়াবে। আর মিউজিক ভিডিওতে কেমন পারিশ্রমিক দেওয়া হয় সেটা আমার জানার দরকার নেই। আমি আমার সম্মানী সম্পর্কে ডিরেক্টরকে জানিয়েছি। তারা সম্মত হয়েছেন বলেই কাজ করেছি।

প্রশ্ন : আপনার সম্মানীর লেভেলটা জানতে চাই? এটা কি উঁচু দরের নাকি মাঝারি? নাকি বাজার চলতি ?

সানাই : এক্ষেত্রে ফিক্সড কিছু নেই। মুল বিষয় মিউচুয়্যালিটি। যদি ডিরেক্টর কনভিন্স করতে পারেন, কাজটা ভাল হয় তবে তো কিছুটা ছাড় দেই, না হলে আমার চাহিদা অনুয়ায়ী নেই। তবে, ঠিক কত টাকা নেই সেটা পাবলিকলি বলতে চাচ্ছি না। ডিরেক্টর হিসেবে কল করবেন। তখন বলবো।

প্রশ্ন : মিডিয়ার নির্দিষ্ট কোনো প্লাটফর্মে কাজ করতে চান কি ?

সানাই : নাহ। নাটক, সিনেমা, মিউজিক ভিডিও, টিভিসি, ওয়েব সিরিজসহ যেকোনো রকমের কাজ করতে চাই। এক্ষেত্রে বাছ-বিচারের বিষয় শুধু ওইটাই-‘কাজটা ভাল কিনা’।

প্রশ্ন : নাটক ও বিজ্ঞাপনচিত্রে অনুপস্থিত কেনো ?

সানাই : বিজ্ঞাপন করেছি এরই মধ্যে। গত ৩ দিন আগে শ্যুট শেষ হলো। একটা টমেটো ক্যাচাপের বিজ্ঞাপন ছিল। নাটক করা হয়নি কারণ, ভাল স্ক্রিপ্ট এখনো হাতে পড়েনি। যেসব কাজ আসছে সেখানে আমার চরিত্রের গুরুত্ব খুঁজে পাইনি। যদি ভাল কোন গল্পের গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে ডাক পাই তবে অবশ্যই নাটক করবো।

প্রশ্ন : মিডিয়ায় আপনার ইনফ্লুয়েন্স সম্পর্কে জানবো-

সানাই : আমার কোন ইনফ্লুয়েন্স নাই। তবে ফেভারিট আছে। এক্ষেত্রে শাবনূও, মাধুরী, দিব্যা ভারতী এবং কারিনা কাপুরের নাম বলা যেতে পারে।

প্রশ্ন : যাদের কথা বললেন তারা সবাই নৃত্যে খুবই দক্ষ এবং সাবলীল। এক্ষেত্রে আপনার প্রস্তুতি কেমন ?

সানাই : আমি শিশু একাডেমি থেকে ৮ বছর ভরত নাট্যম শিখেছি। তাই আশাকরি, এক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ সামলাতে পারবো।

প্রশ্ন : আমাদের ফিল্মে নাচের মান খুবই বাজে। এক্ষেত্রে অভিনয়শিল্পীরা দাবি করেন ভাল কোরিওগ্রাফারের অভাব, আর কোরিওগ্রাফারের অভিযোগ হলো, যা দেখিয়ে দেই সেটা তুলতে পারেন না শিল্পীরা। কোন অভিযোগ সত্যি ?

সানাই : কোনটাই সত্যি না। সত্যি কথা হলো ছবির বাজেট বাড়াতে হবে। একজন ভাল কোরিওগ্রাফার ভাল টাকা নেবে। সেটার ব্যবস্থা হলেই এক্ষেত্রে দৃশ্যপট বদলে যাবে। কেউ করো দোষ দিয়ে লাভ নেই আসলে।

প্রশ্ন : ব্রেস্ট ইমপ্লান্টের বিষয়টাকে কিভাবে দেখবো ? ফোকাস নেওয়ার জন্য ইনভেস্টমেন্ট নাকি অন্যকিছু ?

সানাই : এটা আসলে আমার ব্যক্তিগত বিষয়। তারপরও বলবো শুধুমাত্র আমাকে আরো সুন্দর ও আকর্ষনীয় দেখতে চেয়েই এটা করা। এখানে ফিনানসিয়াল কোন পারপাস নেই।

প্রশ্ন : এটা বাংলাদেশের মানুষের কাছে একদম নতুন একটা বিষয়। ফিডব্যাক ইতিবাচক নাকি বিপরীত ?

সানাই : সোশ্যালি খুব প্রবলেমে আছি। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব বাজেভাবে ট্রোলিংয়ের শিকার হয়েছি এবং এখনো হচ্ছি। এটা নৈতিকতার বিরোধী। কাউকে নিয়ে শুধুই ছোট করার উদ্দেশ্যে এরকমন ট্রোল বা মন্তব্য করার নৈতিক অধিকার কারো আছে কিনা সেটা  ভাবা উচিত আমাদের। তারপরও বলবো, এসবে আমি ভেঙে পড়িনি। আমি এসব ট্রোল কেয়ার করি না।

আরও পড়ুন...