কাশি থেকে মুক্তি মিলবে ঘরোয়া পাঁচ উপায়ে

পিবিএ ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে যাওয়ার ফলে কাশি বর্তমানে যথেষ্ট উদ্বেগজনক। কারো পাশে কাশি দিলেও মানুষজন আতঙ্কিত হয়ে যাচ্ছে। ফলে কাশি থাকার কারণে বেশ বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হচ্ছে অনেককেই।

অথচ কাশি থাকা মানেই কিন্তু করোনা আক্রান্ত হওয়া নয়। সাধারণ কোনো ফ্লু থেকেও কাশি হয়। অবশ্য কাশি দূর করার ব্যবস্থা করা দরকার। চাইলে ঘরোয়া উপায়েও এটি সারিয়ে তোলা যায়।

১. কাশি দূর করতে দীর্ঘকাল ধরে মধু ব্যবহার হয়ে আসছে। চিকিৎসকরা বলছেন, মধু অনেক সময়ে কাশি কমানোর ওষুধের থেকেও ভালো কাজে দেয়। শ্লেষ্মা কমাতে সাহায্য করে মধু। এজন্য কাশি থাকলে নিয়ম করে লেবু-মধুর চা খান।

এজন্য এক চামচ লেবুর রস ও এক চামচ মধু নিন। প্রথমে লেবু দিয়ে চা বানিয়ে নিন। তারপর মধু মিশিয়ে নিন। দিনে দুবার এভাবে খেলে এক সপ্তাহে কাশি দূর হয়ে যাবে।

২. কাশি কমানোর ক্ষেত্রে হলুদ অসাধারণ কাজে দেয়। এজন্য কয়েকদিন দুধে হলুদ মিশিয়ে খেতে হবে। এক গ্লাস গরম দুধ, আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়া, এক চামচ মধু নিতে হবে। গরম দুধে হলুদ আর মধু ভালো করে গুলে দিনে একবার খেতে হবে।

৩. আদা ও লেবুর শরবতেও ভালো কাজ হয়। এক কাপ পানি, কয়েক কুচি আদা, এক চামচ লেবুর রস ও মধু নিতে হবে। পানি হালকা গরম করে তার মধ্যে আদা কুচি, লেবুর রস আর মধু দিতে হবে। দিনে তিন থেকে চার বার এভাবে খেতে হবে।

৪. রসুন কাশি দূর করতে কার্যকরী। রসুন শুষ্ক কাশি কমাতে খুবই দরকারী। গরম ভাতে তেলে ভিজিয়ে রাখা রসুন চটকে খেতে পারেন। বেশ কয়েক দিন খেলে উপকার পাবেন।

৫. কাশি সারানোর ব্যাপারে তুলসি পাতার রস অতুলনীয়। এক চামচ তুলসি পাতার রস, এক চামচ মধু প্রতিদিন সকালে খেলে কাশি দূর হবে। এভাবে এক সপ্তাহ খেতে হবে।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...