খালেদা জিয়াকে নিয়ে মন্ত্রীদের বক্তব্য শিষ্টাচারবহির্ভূত: ফখরুল

ফাইল ছবি।

পিবিএ,ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নিয়ে সরকারের কয়েকজন মন্ত্রীর ‘আপত্তিকর ও বিদ্রূপাত্মক’ বক্তব্যের নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এ আচরণ রাজনৈতিক শিষ্টাচারবহির্ভূত।

রোববার (৯ মে) দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় খালেদা জিয়ার বিষয়ে শালীনতা ও শিষ্টাচার বজায় রেখে কথা বলার অনুরোধ জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘হিটলার, সাদ্দাম, আইয়ুব খান, এরশাদ বেশিদিন ক্ষমতায় টিকতে পারেননি, এই সরকার সেটা ভুলে গেছে। কারণ তারা বন্দুকের নলে ক্ষমতা টিকিয়ে রেখেছে।’

উন্নত চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে কখন কোথায় নেয়া হবে, আর সে প্রক্রিয়া কী হবে— এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘এ প্রক্রিয়াটা পুরোপুরিভাবে নির্ভর করবে সরকারের সিদ্ধান্তের ওপর। কারণ সরকারের সিদ্ধান্তের আগে কোনোটাতেই কোনো প্রক্রিয়া চালানো সম্ভব নয়।’

গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। তার বাসভবন ফিরোজার আরও আটজন ব্যক্তিগত স্টাফও আক্রান্ত হন। এরপর ২৪ এপ্রিল (শনিবার) তার দ্বিতীয় করোনা টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসার কথা জানান তার চিকিৎসক ডা. এফ এম সিদ্দিকী।

২৭ এপ্রিল আবার সিটি স্ক্যানসহ প্রয়োজনীয় কিছু পরীক্ষার জন্য খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। ওই রাতেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত ৩ মে হঠাৎ শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে তাকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। এভারকেয়ার হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা চলছে।

মেডিকেল বোর্ডের পরামর্শে খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ৬ মে তার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে লিখিত আবেদন জমা দেন। আবেদনের বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত সম্বলিত নথি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম।

পিবিএ/জেডএইচ

আরও পড়ুন...