খোকা বিনয়ী, মার্জিত, ও ভদ্র ব্যক্তি ছিলেন : তোফায়েল

খোকা বিনয়ী, মার্জিত, ও ভদ্র ব্যক্তি ছিলেন : তোফায়েল

পিবিএ ডেস্কঃ অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা বিনয়ী ও মার্জিত আচরণের ব্যক্তি ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা তোফায়েল আহমেদ।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় খোকার জানাজায় অংশ নিতে এসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধে খোকার অবদানের কথা স্মরণ করে আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল বলেন, ‘আমাদের মধ্যে রাজনৈতিক মতপার্থক্য থাকলেও ব্যক্তিজীবনে তিনি চমৎকার মানুষ ছিলেন। ব্যক্তিজীবনে আমাদের প্রত্যেক্যের মধ্যেই ত্রুটি রয়েছে। সাদেক হোসেন খোকা মানুষ হিসেবে ছিলেন অমায়িক ও ভদ্র।’

শুধু আওয়ামী লীগ নেতারা নয়, মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের এ গেরিলা যোদ্ধার জানাজায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সর্বস্তরের জনগণও অংশ নেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ বলেন, ‘খোকা সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য একজন রাজনৈতিক নেতা ছিলেন। তিনি আধুনিক ঢাকা গড়ার কাজ শুরু করেছিলেন। আমরা তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করি।’

খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন বলেন, ‘জানাজায় সব দলের নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণ প্রমাণ করেছে যে তার বাবা সবার কাছে একজন গ্রহণযোগ্য নেতা ছিলেন। আমার বাবা দেশে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করতে না পারার দুঃখ নিয়ে মারা গেছেন। তিনি (খোকা) ভ্রমণ নথি দিয়ে দেশে ফিরলেন। তিনি ২০১৭ সালে ভিসার মেয়াদ নবায়নে আবেদন করলেও তিনি তা পাননি।’

ইশরাক খোকার মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে তাদের সহযোগিতা করার জন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

জানাজা শেষে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা সংসদের বিরোধী দলের নেতা পক্ষ থেকে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, এলডিপি প্রেসিডেন্ট অলি আহমেদসহ বর্তমান ও সাবেক সংসসদ সদস্যরা খোকার কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

জানাজায় অন্যান্যদের মধ্যে অংশ নেন সাবেক রাষ্ট্রপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, বিএনপি নেতা ড. আব্দুল মঈন খান, ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, এলডিপি সভাপতি অলি আহমেদ, জাতীয় পার্টির নেতা কাজী ফিরোজ রশীদ, ফখরুল ইমাম, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আব্দুল কাদির সিদ্দিকী, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

পিবিএ/এমআর

আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন