ঘরে ঘরে হানা দিচ্ছে ফ্যাটি লিভার, কোন ডায়েটে উপশম?

পিবিএ ডেস্ক: ফ্যাটি লিভার বা লিভারে প্রদাহের সমস্যায় অনেক মানুষ ভোগেন। অত্যধিক অ্যালকোহল ফ্যাটি লিভারের একটা কারণ কিন্তু অ্যালকোহল খেলেই যে ফ্যাটি লিভার হবে এমনটা নয়। নন অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভারও হয়। যাঁরা বেশিমাত্রায় প্রসেসড ফুড খান, বাইরের খাবার খান, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপনে চলেন তাঁদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা আরও বেশি। যাঁরা এই ফ্যাটি লিভারের সমস্যায় ভোগেন তাঁদের ক্ষেত্রে প্রধান অস্ত্র হল ডায়েট। সুষম আহার আর পর্যাপ্ত ঘুমে মেটানো যায় এই সমস্যা। আপনি কি ফ্যাটি লিভারের সমস্যায় ভুগছেন? দেখে নিন প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় আপনি কি কি রাখতে পারেন-

ব্রকোলি- ব্রকোলি খেলে ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমে। প্রস্টেট, ব্রেস্ট, লিভার আর কোলন ক্যান্সারের ক্ষেত্রে ব্রকোলি খুবই উপকারী। এছাড়াও ফাইবার বেশি থাকায় এই সব্জি ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাই যারা ডায়েট করেন তাঁদের বলা হয় খাদ্য তালিকায় এই খাবার রাখতে।

ওয়ালনাট- ওয়ালনাটের মধ্যে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে। যা প্রদাহ কমায়। যাঁরা নন অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভারের সমস্যায় ভুগছেন তাঁরা খাদ্য তালিকায় এই ফল রাখুন।

রসুন- নানা গবেষণায় দেখা গিয়েছে রসুন খুবই উপকারী। তাই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় থাক রসুন। ফ্যাটও ঝরবে লিভারও ভালো থাকবে।

গ্রিন টি- গ্রিন টি নানা রোগের উপশম করে এমনটাই বলা হয়। প্রতিদিন তিন কাপ গ্রিন টি খেলে ফ্যাটি লিভারের সম্ভাবনাও অনেকটা কমে। এছাড়াও এর মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ওজন কমাতে সাহায্য করে।

কফি- কফির মধ্যে থাকা ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড ওজন কমাতে সাহায্য করে। তবে দুধ চিনি দিয়ে কফি একদম নয়। প্রয়োজনে ব্ল্যাক কফি খান। ওজনও কমবে। লিভারের সমস্যাও কমবে।

এসব ছাড়াও স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন মেনে চলুন। ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন। ফ্যাটি লিভারের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

পিবিএ/এমএস

আরও পড়ুন...