চৌদ্দগ্রামে কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মাদরাসা ছাত্রী অপহরণ

মোঃ এমদাদ উল্যাহ,চৌদ্দগ্রাম(কুমিল্লা): কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মাদরাসায় পড়ুয়া অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া এক ছাত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে। উপজেলা ঘোলপাশা ইউনিয়নের শুভপুর বাবুচি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অপহৃত মাদরাসা ছাত্রীর মা রানু বেগম বাদি হয়ে বখাটে মহিন উদ্দিন, তাঁর পিতা আবু তাহের, ভাই ছালেহ আহম্মদ, স্থানীয় হৃদয় ও নবীসহ ৫ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা আরও ২-৩ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, শুভপুর বাবুচি গ্রামের রানু বেগমের মেয়ে(১৩) বাবুচি দারুচ্ছুন্নাত দাখিল মাদরাসার অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। বিগত কয়েক বছর ধরে পাশ^বর্তী বাড়ির মহিন উদ্দিন ওই ছাত্রীকে মাদরাসায় আসা-যাওয়ার পথে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে রাজি না হওয়ায় মহিন উদ্দিন মাদরাসা ছাত্রীকে অপহরণের হুমকি-ধমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। বিষয়টি মহিন উদ্দিনের পরিবারকে জানালে তারা কর্ণপাত করেনি। এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাতে মাদরাসা ছাত্রী প্রকৃতির ডাকে বের হলে পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা মহিন উদ্দিনসহ বিবাদিরা তাঁকে

জোরপূর্বক মুখ চেপে ধরে সিএনজি অটোরিকশাযোগে অপহরণ করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি মহিন উদ্দিনের পরিবারকে অবহিত করলে উল্টো ক্ষীপ্ত হয়ে মাদরাসা ছাত্রীর মাকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করে অপূরণীয় ক্ষতি সাধণের হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি গণ্যমান্য ব্যক্তিদের পরামর্শে আইনের আশ্রয় নেয় মাদরাসা ছাত্রীর পরিবার।
এ ব্যাপারে শনিবার দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই মোহাম্মদ শামীম বলেন, ‘আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে’।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...