ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তির দাবিতে ইবিতে বিক্ষোভ

পিবিএ,ইবি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তর দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল কারেছে দলীয় কর্মীরা। মঙ্গলবার ২টার দিকে বিক্ষোভ মিছিল করে প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে প্রায় আধা ঘন্টা গাড়ি আটকে রাখে তারা। এতে দুপুর ২টার বিশ^বিদ্যালয়ের নির্ধারিত বাস ছেড়ে যেতে পারেনি। এসময় ভোগোন্তিতে পরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আর্থিক লেনদেনের বিনিময়ে করা কমিটি বিলুপ্তির দাবিতে দলীয় টেন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব দেন সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শিশির ইসলাম বাবু, তৌকির মাহফুজ মাসুদ, সাবেক ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান লালন ও সহ-সম্পাদক ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত। মিছিলটি বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রধান ফটক সংলগ্ন বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব’ এর পদদেশে সমাবেশে মিলিত হয়।

একইসঙ্গে বিশ^বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয় ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা। এতে ক্যাম্পাস থেকে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহগামী ২টার নির্ধারিত বাস ছেড়ে যেতে পারেনি। এতে ভোগান্তিতে পরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। পরে প্রায় আধা ঘন্টা পর তালা খুলে দেয় নেতা-কর্মীরা। সমাবেশে বিদ্রোহী গ্রুপের নেতা তৌকির মাহফুজ মাসুদ বলেন, ‘পলাশ-রাকিব অনৈতিকভাবে টাকা দিয়ে কমিটিতে এসেছে। আমরা এ কমিটি মানিনা। কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে এ কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি গঠনের দাবি জানাচ্ছি।

এবিষয়ে বিশ^বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন বলেন, ‘ছাত্রলীগ যা দাবি করেছে তা বিশ^বিদ্যালয়ে সমাধানের বিষয় না। এ দাবিতে গেট আটকানো আমার কাছে যৈাক্তিক মানে হয়নি।’

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি শাখা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবের ৪০ লাখ টাকায় নেতা হবার অডিও ফাঁস হয়। তার জেরে সভাপতি-সম্পাদক দুজনকেই ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে বিদ্রোহী গ্রুপের নেতা-কর্মীরা। এ ঘোষণার পর কয়েকবার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ক্যাম্পাসে আসলে ধাওয়া দিয়ে তড়িয়ে দেয় তারা। বর্তমানে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কারা এক মামলায় জেলে রয়েছেন সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব।

পিবিএ/আহসান নাঈম/বিএইচ

আরও পড়ুন...