“জনগণ আগের চেয়ে সচেতন ও দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়েছে”

পিবিএ,ঢাকা: গত ৮ আগস্ট কোরবানি বর্জ্য অপসারণে প্রস্তুতিমূলক সংবাদ সম্মেলনে ডেঙ্গু প্রতিরোধ সম্পর্কে আপনাদের মাধ্যমে জনসাধারণকে সচেতনতামূলক বার্তা প্রেরণের অনুরোধ জানানো হয়েছিল। আবারো আপনাদের মাধ্যমে জনসাধারণকে জানাতে চাই যে, ডেঙ্গু প্রতিরোধ করার জন্য জনসচেতনতাসহ বিশেষ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এই ক্যাম্পেইনে জনগণ স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণ ও সহায়তা প্রদান করছে এবং তাদের নিজস্ব বাসা-বাড়ির আঙ্গিনা পরিষ্কারে আন্তরিক হচ্ছে। তবে ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক লোক ঢাকা ত্যাগ করে গ্রামাঞ্চলে গমন করছে এবং অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই ফেরৎ আসবে। ঢাকা আগমনের পর তারা যেন তাদের বাসা-বাড়ি, অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এডিস মশা প্রজনন প্রতিরোধে সচেতন থাকে সেজন্য আপনাদের মাধ্যমে সকলকে অনুরোধ করতে চাই।

এ বছর কোরবানি বর্জ্য ব্যবস্থাপনা তদারকীতে পরিলক্ষিত হয় যে :

* জনগণ আগের চেয়ে সচেতন ও দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়েছেন
* বর্জ্য ব্যাগ, ব্লিচিং পাউডার এবং তরল জীবানুনাশক ব্যবহার বেড়েছে
* ডিএনসিসির সক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে
*অনেকেই ডিএনসিসির নির্ধারিত স্থানে না গিয়ে নিজ বাড়ির সামনের রাস্তার উপর কোরবানি করেছেন যা অপ্রত্যাশিত ছিল। আগামি কোরবানিতে সকলকে রাস্তার উপর পশু কোরবানি করা থেকে বিরত থাকার আহবান জানাচ্ছি

* স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সক্রিয় অংশগ্রহণ এবং পদক্ষেপের কারণে জনগণ যত্রতত্র স্থানে কোরবানি করা থেকে বিরত থেকেছে এবং দ্রুত বর্জ্য অপসারণ করা সম্ভব হয়েছে
* সর্বোপরি প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক, অনলাইন মিডিয়া এবং সোশাল মিডিয়ায় সংশ্লিষ্টরা কোরবানির বর্জ্য সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার বিষয়ে জোর প্রচারণা চালিয়েছেন। এ জন্য তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আগামি বছর আমাদের যে বিষয়গুলোতে জোর দিতে হবে তা হলো :

* যত্রতত্র কোরবানি করা হতে বিরত রাখার জন্য জনসচেতনতা বৃদ্ধি ও উদ্ভাবনী প্রচারাভিযান চালানো এবং প্রয়োজনবোধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ
*কোরবানির পশুর বর্জ্য রাখার জন্য পঁচনশীল ব্যাগের ব্যবহার চালু করণ। আমরা এবছরও স্বল্প পরিসরে ব্যবস্থা করেছিলাম।
* হালাল ও আধুনিক পদ্ধতিতে পশু কোরবানি করার স্থান বৃদ্ধিকরণ
* কোরবানির পশুর বর্জ্য ল্যান্ডফিলে সনাতনী ডাম্পিংয়ের পরিবর্তে বর্জ্যকে সম্পদে রূপান্তর করা

সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এবং সহযোগিতায় কোরবানির প্রথম দিনে ডিএনসিসি এলাকায় উৎপাদিত বিপুল পরিমান বর্জ্য সকল ওয়ার্ডের রাস্তা থেকে ২৪ ঘন্টার কম সময়ে অপসারণ করা হয়েছে। সে জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন