“সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দানব সরকারকে সরাতে হবে”

পিবিএ,ঢাকা: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আজকে আমাদের সবার অস্তিত্বের প্রশ্নে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং ঐক্যবদ্ধভাবে এই দানবকে (সরকার) সরাতে হবে। এই দানবকে সরাতে না পারলে আমাদের অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে পড়বে।

বুধবার রাতে হিন্দু বৌদ্ধ খৃস্টান কল্যাণ ফ্রন্টের উদ্যোগে ‘ভগবান শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে ভার্চুয়াল এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এতে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করছি, লড়াই করছি। শ্রীকৃষ্ণের যে মূল বক্তব্য, যে কথা গণতন্ত্র, মানবতা শান্তি। শান্তি, মানবতা কখনোই আসবে না, যদি গণতন্ত্র না আসে। গণতন্ত্র যদি না থাকে তাহলে কোনো ধর্মের মানুষই নিরাপদ নন। এ কারণেই এ দিনটিকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মনে করি। আজকে আমাদের সবার অস্তিত্বের প্রশ্নে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং ঐক্যবদ্ধভাবে এই দানবকে সরাতে হবে। এই দানবকে সরাতে না পারলে আমাদের অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে পড়বে।

“সব ধর্ম, জাতি, রাজনৈতিক দল ব্যক্তি বিশেষকে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার যে আহ্বান, সেই আহ্বানে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দানবের সাথে বোঝাপরা করতে হবে। চলুন লড়াইয়ে মধ্যদিয়ে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করি।”

সংখ্যা লঘু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, দুর্ভাগ্য আমাদের আজকে যারা ক্ষমতা দখল করে বসে আছে তাদের আমলেই সেই সব সম্প্রদায়ের মানুষ নিপীড়ন-নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। তাদের উপসানলয়কে ধ্বংস করা হয়েছে, তাদের সম্প্রদায়ের মানুষদের ওপর অত্যাচার করা হচ্ছে, তাদের সম্পত্তি দখল করে নেয়া হচ্ছে, তাদের যে ন্যূনতম অধিকার তা আজ নেই।

করোনা চিকিৎসার দুরাবস্থার কথা তুলে ধরে ফখরুল বলেন, ঢাকার কয়েকটি হাসপাতাল ছাড়া দেশের কোথাও কোনো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা নেই। আমার জেলার (ঠাকুরগাঁ) একজন বীর মুুক্তিযোদ্ধা, তিনি মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ছিলেন। গত ৪/৫ দিন ধরে তিনি অসুস্থ। জেলা শহরে চিকিৎসার কোনো ব্যবস্থা নেই। দিনাজপুরে পাঠানো হয়েছে, সেখানে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও কোনো চিকিৎসা নেই। এখন তাকে ঢাকা নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে। এই সরকার সব দিক দিয়ে শুধু ব্যর্থই রাষ্ট্রকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

ফ্রন্টের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট গৌতম চক্র বর্তীর সভাপতিত্বে সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা জয়ন্ত কুমার কুন্ডু, অর্পনা দাস রায়, অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরী
প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।

পিবিএ/এমআর

আরও পড়ুন...