দীঘিনালায় ভ্রাম্যমান মোবাইল কোর্টে ৬ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

পিবিএ,দীঘিনালা: খাগড়াছড়ি দীঘিনালায় বোয়ালখালী নতুন বাজারে, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইনের বিভিন্ন ধারায় আইন অমান্য করার ৬ ব্যবসায়ীকে ১ লক্ষ ২৫ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করেছেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ভ্রাম্যমান মোবাইল কোটের্র অভিযানে। মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দীঘিনালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ উল্লাহ এ অভিযান চালান। এসময় উপজেলা স্যানিটারী ইন্সপেক্টর নিরাপদ খাদ্য পরির্দশক মাকসুদুর রহমানের সহযোগীতায় নিরাপদ খাদ্য অধিদপ্তর আইনে ৬ ব্যাবসায়ীকে জরিমানা করা হয়।

এসময় শাহিন ত্রিপুরাকে ধুমপান ও তামাক জাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রন)আইন ২০০৫ ধারার ৫ নং ধারায় ৫০০ টাকা , আল-আমিন হোটেলে খাবারের নোংরা পরিবেশ এবং অপরিচ্ছন রাখার দায়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ২০০৯ এর ৫৩ নং ধারায় ৫,০০০ টাকা, অক্ষয় স্টোর বস্ত্রশিল্পের প্রিন্টিং রঙ রাখার অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইন ৪২ নং ধারায় ১০,০০০হাজার টাকা , আব্দুর রাজ্জাক স্টোর অ্যামোনিয়াম সালফেট ২৫ কেজি এব ইস্ট ১৫ প্যাকেট বস্ত্রশিল্পের প্রিন্টিং জগং রং জব্দ করা হয় এবং ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ ইং এর ৫৩ নং ধারায় ৫০,০০০ হাজার টাকা, সেলিম স্টোর অ্যামোনিয়াম সালফেট ২৫ কেজি এবং বস্ত্রশিল্পের প্রিন্টিং জগং রং জব্দ করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ৫৩ নং ধারায় ৫০,০০০হাজার টাকা , পর্যটন হোটেলে ভেজাল দুধ উপাদন এবং খাদ্য নোংরা পরিবেশ এবং অপরিচ্ছন থাকায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ২০০৯এর ৪৫ ধারায় ১০,০০০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা মোহাম্মদ উল্লাহ জানান , আমারা বিভিন্ন সূত্রে জানতে পারি উপজেলার বিভিন্ন ব্যবসায়ী’রা ভেজাল পণ্য এবং ইষ্ট,অ্যামোনিয়াম সালফেট এবং বস্ত্রশিল্পের বিভিন্ন ধরনের রং দিয়ে হোটেলে খাদ্য উৎপাদনে ব্যবহার করা করে আসছে যা খাবার হিসাবে গ্রহন করলে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষনের বিভিন্ন ধারায় আইন অমান্য করার অপরাধে ৬ ব্যবসায়ীকে ১ লক্ষ ২৫ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়েছ।

পিবিএ/সোহেল রানা/বিএইচ

আরও পড়ুন...