দুই মাসে সরকার ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছে ২০১১২ কোটি টাকা

পিবিএ,ঢাকা:  চলতি অর্থবছরে বাজেটের ঘাটতি মেটাতে ব্যাংক খাতে সরকার যে পরিমাণ ঋণ নেয়ার পরিকল্পনা করেছিল, তার ৪৫ শতাংশ নেয়া হয়ে গেছে দুই মাসেই। জুলাই এবং আগস্টে ব্যাংক খাত থেকে ঋণ হিসেবে ২০ হাজার ১১২ কোটি টাকা নেয়া হয়েছে। এই অর্থ গত অর্থবছরের ব্যাংক ঋণের ৬৭ শতাংশ।

সরকারের ব্যাংক ঋণের স্থিতি দাঁড়িয়েছে এক লাখ ২৮ হাজার ২১৬ কোটি টাকা। গত জুনে ২০১৮-১৯ অর্থবছর শেষে সরকারের ব্যাংক ঋণের স্থিতি ছিল এক লাখ আট হাজার ১০৪ কোটি টাকা।

সরকারের ঋণগ্রহণ-সংক্রান্ত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। এতে দেখা যায়, গত বছরের আগস্ট শেষে সরকারের ঋণের স্থিতি ছিল ৯৬ হাজার ৬১৮ কোটি টাকা। সে হিসেবে গত এক বছরে ঋণ বেড়েছে ৩১ হাজার ৫৯৮ কোটি টাকা।

প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে দেখো গেছে, জুলাই এবং আগস্ট মাসে সরকারের নেওয়া মোট ঋণের মধ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে নিয়েছে ৯২৫ কোটি টাকা। বাকি ১৯ হাজার ১৮৭ কোটি টাকা নিয়েছে তারল্য সংকটে থাকা বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো থেকে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা জানান, অর্থবছরের শুরুতে সরকারের রাজস্ব আদায় কিছুটা কম থাকে। এ কারণে ব্যয় নির্বাহে বরাবর শুরুর দিকে ব্যাংক ঋণ নেয়ার পরিমাণ বাড়ে। পরে বাড়ে পরিশোধ। এই দুই মাসে অবশ্য ঋণ নেয়ার পাশাপাশি তিন হাজার ৬৬৪ কোটি টাকার বেশি ঋণ পরিশোধও করা হয়েছে।

পিবিএ/বাখ


আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন