নওগাঁ সদরে সিএনজি রিক্সা সহ সকল সংগঠনের চাঁদাবাজি বন্ধ ঘোষণা

পিবিএ,নওগাঁ: নওগাঁ সদর উপজেলায় সিএনজি রিক্সা টমটমসহ সকল সংগঠনের নামে সকল প্রকার চাঁদাবাজি বন্ধ ঘোষণা করেছেন নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন। জানাগেছে ২৬ ফেব্রয়ারী বুধবার থেকে রিক্সা – ভ্যান, টমটম কিংবা সিএনজি থেকে শ্রমিক / মালিক কল্যাণ ও লক, রুট পারমিট বা অন্যান আদায়ের নামে সকল প্রকার চাঁদাবাজি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।এই সব চাঁদাবাজির সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে। ইতোমধ্যে চাঁদা বাজির সাথে জড়িত ১০/১২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং এদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এবিষয়ে নওগাঁ সদর মডেল থান অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন পিবিএকে বলেন,নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া (বিপিএম) স্যারের র্নিদেশনায় বিভিন্ন মালিক/ শ্রমিক / কল্যান সংগঠনের নামে রোডে সকল প্রকার চাঁদাবাজি বন্ধ ঘোষণা করাহয়েছে। এই সমস্ত চাঁদাবাজির সাথে জরিত সকলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে। ইতোমধ্যে ১০/১২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। চাঁদাবাজি রুখতে উপজেলার সকল স্তরের জনসাধারণের সহযোগিতা চেয়েছেন (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন। প্রসঙ্গত গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শফিকুর রহমান মামুন তার পৌরর্নিবাচনি প্রচারণায় গেলে রিক্সা- ভ্যান শ্রমিকদের সাথে দেখাহলে তারা লক কল্যাণের নামে অর্থ হরিলুট ও শ্রমিক নির্যাতনের প্রতিকার চেয়েছেন।

তখন তিনি আওয়ামী লীগের দলীয় ইস্তেহারের শ্লোগান চাঁদা আদায়ের বই ব্যাবহার করে রিক্সা – ভ্যান শ্রমিকদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের তিব্র নিন্দা ও এর সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসন ও আইন শৃংখলা বাহিনী সহ সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিলে আইন শৃংখলা বাহিনী বিষয়টি আমলে নিয়ে দ্রুততার সাথে চাঁদাবাজি বন্ধে পদক্ষেপ গ্রহন করে।এদিকে চাঁদা আদায় বন্ধ এবং চাঁদাবাজদের গ্রেফতার ও তাদের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ায় শ্রমজীবী মানুষের মধ্যে আনন্দের বন্যা বইছে। তাদের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় শফিকুর রহমান মামুন ও সদর থানার (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

পিবিএ/ইউনুস আলী ফাইম/বিএইচ

আরও পড়ুন...