নরসিংদী টু মদনগঞ্জ সড়কে বেড়েছে দুর্ঘটনা

খন্দকার শাহিন,নরসিংদী: নরসিংদী টু মদনগঞ্জ সড়কে এক সপ্তাহে চারটি দুর্ঘটনায় এক শিশুর প্রাণহানি সহ আহত হয়েছে আরও চারজন। এছাড়া এ সড়কে বেপরোয়া প্রাইভেটকার, মটরসাইকেল চলাচলে বিপাকে পড়েছে রিকশা সহ তিন চাক্কার চালকরা। বুধবার (১৩ জানুয়ারি) সকলে এ সড়কে গুরুত্বর আহত হন নরসিংদী জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বীন মোহাম্মদ দীপু ও তার গাড়ী চালক। দুজনেই হাসপাতালে চিকিসাধিন রয়েছে। এর আগে জরুরী কাজে বেলা ১১টার দিকে ঢাকা যাচ্ছিলেন দ্বীন মোহাম্মদ দীপু। এসময় তার গাড়িটি কাঠালিয়া ইউনিয়নের আব্দুল্লাকান্দি বাজার সংলগ্ন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গিয়ে খাদে পড়ে যায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সদর উপজেলা মাধবদীর কাঠালিয়া ইউনিয়নের শাহিন (১৩), ফারুক (৩৫), জামাল মিয়া (৫৫) এ সড়কে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে গুরুত্বর আহত অবস্থায় ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নিহত শিশু সস্মিতা (৬) একই ইউনিয়নের শ্যামল এর মেয়ে। খড়িয়া টু মাধবদী সড়কটি খানাখন্দ হওয়ায় নরসিংদী টু মদনগঞ্জ (সাবেক রেল) এ সড়কে যানচলাচল বেড়ে গেছে। এতে করে দুর্ঘটনাও বেড়েছে বলে জানান স্থানীয় লোকজন।

কাঠালিয়া একতা মানবসেবা সংগঠনের পক্ষ থেকে ওই সড়কে দুর্ঘটনা রোধে করনীয় ব্যবস্থা ও সড়ক নিরাপত্তার জন্য সংশ্লিষ্টদের উদ্বেগ নেয়ার জন্য আহ্বান জানান।

নিপারদ সড়র চাই (নিসচা) নরসিংদী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট ফয়সাল সরকার সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, সম্প্রতি নরসিংদী টু মদনগঞ্জ সড়কে অনেক কম যান চলাচল করতো। এ সড়কে দুর্ঘটনা রোধে বিদ্যমান আইন প্রয়োগ জরুরি।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যানজটের আশঙ্কা করে প্রাইভেট গাড়ি গুলো নরসিংদী শহর থেকে ঢাকা,নারায়ণগঞ্জ যেতে এ সড়কে চলাচল করে। এতে যে সকল চালকরা দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য বেপরোয়া হয়ে গাড়ি চালানোর কারণে দুর্ঘটনার শিকার হয়। এ সড়কে দুর্ঘটনা হ্রাস করার জন্য চালকদের সড়ক নিরাপত্তা আইন মেনে গাড়ি চালানো ও সড়ক বিভাগের সংশ্লিষ্টদের পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...