নিজেকেই বিশ্বাস করতে পারছেন না ভারতীয় ক্রিকেটার “কোহলি”

পিবিএ ডেস্ক : এগারো বছর আগে এত ভাল বোলার ছিলেন তিনি! নিজেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না বিরাট কোহলি। তারপর অবশ্য বেশ মজা করেই বললেন, “আসলে আমি মারাত্মক বোলার।” সাংবাদিক বৈঠকে ভারত অধিনায়কের এমন মজার উত্তরই বুঝিয়ে দিল সেমিফাইনালের আগে ঠিক কতটা খোসমেজাজে রয়েছে টিম ইন্ডিয়া।

সালটা ২০০৮। অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে বিরাট কোহলির ভারত। প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড। সেই দলের অধিনায়ক আবার কেন উইলিয়ামসন। সে ম্যাচে কিউয়িদের হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছে গিয়েছিলেন কোহলিরা। মাঝখানে প্রায় এগারোটা বছর কেটে গিয়েছে। মঙ্গলবার ম্যাঞ্চেস্টারে যেন সেই স্মৃতিই ফের ভেসে ওঠার অপেক্ষা। এবার সিনিয়র দলের নেতা কোহলি ও উইলিয়ামসন। তাই সাংবাদিক সম্মেলনে ঘুরে ফিরে এল এগারো বছর আগের কথাগুলোই। যা নিয়ে বিরাটের প্রতিক্রিয়া ছিল দেখার মতো।

সেবার অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে উইলিয়ামসনের উইকেটটি তুলে নিয়েছিলেন খোদ কোহলি। তার বলেই স্টাম্প আউট হন কিউয়ি অধিনায়ক। কেরিয়ারের এতগুলো বছর পর সে স্মৃতি অনেকটাই ম্লান হয়ে গিয়েছে কোহলির জীবনে। কিন্তু মঙ্গলবার শেষ চারের লড়াই শুরুর আগে তাকে সে কথা মনে করিয়ে দিতেই চোখে-মুখে তৃপ্তির ছাপ। এক গাল হেসে জিজ্ঞেস করলেন, “সত্যিই কেনকে আমি আউট করেছিলাম? আমার তো মনেই পড়ছে না। জানি না, এখনও আর সেটা সম্ভব কি না। আমি কিন্তু বেশ ভাল বোলার তার মানে।” তবে ফুরফুরে মেজাজের মধ্যেও দল যে প্রস্তুতিতে এতটুকু ঘাটতি রাখছে না, সেকথাও জানালেন বিরাট। তিনি বলেন, দল পর্বে অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্ভব। কিন্তু নকআউটে কোনওরকম ঝুঁকি নেওয়া যাবে না। তাই খুব ভেবে সব সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

দল পর্বে গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়েছেন রোহিত শর্মা। আট ম্যাচে ছ’শো রানের গণ্ডি পেরিয়ে গিয়েছেন তিনি। কোহলির আশা, নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে নিশ্চয়ই ফাইনালে পৌঁছে যাবে ভারত। আর টুর্নামেন্টে আরও দুটি সেঞ্চুরি করবেন দলের হিটম্যান। সেই সঙ্গে ধোনির প্রশংসা করে বিরাট ফের মনে করিয়ে দেন দলে মাহির গুরুত্ব কতখানি। তিনি বলেন, “সমালোচনা যতই হোক, ধোনির প্রতি আমার সম্মান সবসময় আকাশচুম্বি।”

পিবিএ/এমআই

আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন