নিজ বাড়িতে ফিরতে চায় নাম ঠিকানাহীন এক গৃহবধূ

পিবিএ,রাজারহাট (কুড়িগ্রাম): কুড়িগ্রামের রাজারহাটে উপজেলায় নাম পরিচয়হীন ৪০বছর বয়সী এক গৃহবধূ নিজ পরিবারে ফিরতে চায়। ওই গৃহবধূকে গত ৯/১০বছর আগে রাজারহাটে চাকিরপশার ইউনিয়নের ফুলখার চাকলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ফাতেমা বেগম উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গার বুড়িরহাট নামক এলাকায় অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে নিজ বাড়ি রতিরাম কমলওঝাঁ নিয়ে আসে। চিকিৎসা করার পর সুস্থ হয়ে উঠলেও ফিরে আসেনি তার পুরোনো স্মৃতি। দীর্ঘদিন ধরে সেখানেই কাজকর্ম করে জিবন নির্বাহ করেন। কিন্তু এরই মধ্যে স্কুল শিক্ষিকা ফাতেমা বেগম মারা যায়। তখন ওই মহিলার দায়ভার গ্রহণ করে শিক্ষিকার বড়ছেলে সুইট রানা।

সুইট রানা জানান, উদ্ধার হওয়া ওই গৃহবধূ তার পুরোনো কোন স্মৃতি মনে করতে পারেনা, প্রায় ৮/৯ বছর যাবত আমাদের বাড়িতে আছে। মা মারা যাওয়ার পর আমি তাকে নিজের মায়ের মত সেবা যন্ত করছি। তবে এখন আমি চাই উনি তার পরিবারের কাছে ফিরে যাক। কারণ প্রত্যেক মানুষেরই একটি পরিবার আছে, আর তাকেও তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে পারলে আমরাও দায় মুক্ত হতে পারবো। ওই মহিলা বলেন, আমার কিছু মনে পড়ে না। তবে আমি পরিবারের কাছে যেতে চাই।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার (৪ মে) প্রতিবেশি রাসেল আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শিক্ষিকা ফাতেমা বেগম ও তার ছেলে সুইট রানা নাম পরিচয় বলতে না পাড়া এই মহিলাকে বসবাসের স্থান দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। ওই মহিলার পরিবারের লোকজন ছবি দেখে চিনতে পারলে যোগাযোগ করতে পারেন।

পিবিএ/প্রহলাদ মন্ডল সৈকত/জেডএইচ

আরও পড়ুন...