নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ

 

প্রতীকী ছবি।

পিবিএ,লক্ষ্মীপুর: নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ চা দোকানদার কামাল,মোটর সাইকেল চালক জাবেদের বিরুদ্ধে।

সোমবার রাতে সদর উপজেলা চর রমণীমোহন ইউনিয়নের মাতাব্বরহাট গ্রামের ৯ নং ওয়ার্ডে বশির মিস্ত্রি বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে!

বুধবার দুপুরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।এই ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। ঘটনার পর থেকে অপরাধীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

অভিযুক্ত চা দোকানদার কামাল(২৫)মাতাব্বরহাট গ্রামের মতলব মাঝির ছেলে, মোটর সাইকেল চালক জাবেদ (২৩)একই এলাকার মোস্তফা মাঝির ছেলে।

নির্যাতিত আহত স্বামী জাফর জানান,সোমবার দিবাগত রাত ৯ ঘটিকার দিকে কামাল আমাকে ও আমার স্ত্রীকে চায়ের সাথে কিছু মিশিয়ে দিয়ে খাইয়ে দেয়, ঘন্টা খানেক পর ঘুমের ভাব আসে। তারপর বমিও করি এবং ঘুমিয়ে পড়ি। এতে গভীর রাতে কামাল ঘরে ঢুকে স্ত্রীকে ধর্ষণ করে,আমি টের পেলে ঘুমের ভাব অবস্থায় আমি কামালের লুঙ্গি ধরে জড়িয়ে ধরলে সে ঝাকানি দিয়ে সে পালিয়ে যায়,পরে আমার স্ত্রীকে উলঙ্গ অবস্থা দেখতে পেয়ে, অচেতন অবস্থায় ঘুমিয়ে পড়ি। একদিন পর তিনি তার বাবা-মা’কে ঘটনাটি খুলে বলেন। তারা কেউ গত কয়েকদিন যাবত বাড়িতে ছিলেন না। এ ঘটনার ন্যায় বিচার দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত জাবেদ জানায়,ঘটনার দিন রাত ২ ঘটিকার দিকে বেড়ির উপরে কামালের সঙ্গে দেখা হলে তিনি একটি মোবাইল ফোন আমার কাছে রেখে চলে যায়। ধর্ষনের সাথে জড়িত নয় বলে দাবি করেন তিনি।

শুক্রবার লক্ষ্মীপুর সদর থানার (ওসি) আজিজুর রহমান মিয়া জানান,ঘটনাটি খবর পেয়েছি,তদন্ত করে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পিবিএ/আলমগীর হোসেন/এমআর

আরও পড়ুন...