পঙ্গু ভিক্ষুকের হাতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার তুলে দিলেন ইউএনও

ইমতিয়াজ আহমেদ,শিবচর (মাদারীপুর): খোকন হাওলাদার পঙ্গু। জমিজমা নেই। নেই বসতভিটাও। ছেলেমেয়েদের বিবাহ দেয়ার পর মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে তারাও। ভিক্ষাবৃত্তির মাধ্যমেই বেঁচে থাকা খোকন হাওলাদারের। পঙ্গু বিধায় গড়িয়ে গড়িয়ে পথে ঘাটে ভিক্ষা করে বেড়ান তিনি। থাকেন শহরের রাস্তি কাঠপট্টি বিজ্রের নিকট এক ভাড়া বাড়িতে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগষ্ট) পঙ্গু এই ভিক্ষুকের হাতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বরূপ খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) সাইফুদ্দিন গিয়াস। খাদ্য সামগ্রী পেয়ে আবেগ তাড়িত হয়ে পরেন খোকন হাওলাদার। আর তার হাতে খাদ্যসামগ্রীর একটি প্যাকেট তুলে দিতে পেরে মানসিক প্রশান্তি অনুভব করেন ইউএনও সাইফুদ্দিন গিয়াস।

জানা গেছে, পঙ্গু খোকন হাওলাদার শহরের বিভিন্ন স্থানে রাস্তায় গড়িয়ে ভিক্ষা করেন। প্রায়ই তার সাথে রাস্তাঘাটে দেখা হয় ইউএনও’র। সম্প্রতি অসহায় মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী অাসলে পঙ্গু ওই ভিক্ষুকের কথা মাথায় আসে সদর ইউএনওর। অসহায় ওই ভিক্ষুকের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিতে তাকে খুঁজে বের করেন। পরে সময় করে অফিসে আসতে বলেন। বৃহস্পতিবার হঠাৎ করেই ইউএনও অফিসে আসে পঙ্গু খোকন হাওলাদার। প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন তার হাতে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) সাইফুদ্দিন গিয়াস বলেন,’লোকটিকে শহরের পুরান বাজার এলাকায় ভিক্ষা করতে দেখতাম। খোঁজ খবর নিয়ে জানলাম জমিজমা- বসতভিটাহীন লোকটি ভিক্ষা করেই ছেলেমেয়েদের বড় করেছেন। বিয়ে দিয়েছেন। অথচ সন্তানেরা তাকে দেখছে না কেউই। শহরের রাস্তি এলাকায় বাসা ভাড়া করেন থাকেন। তার হাতে সাহায্যের প্যাকেট তুলে দিতে পেরে নিজের কাছেও ভালো লাগছে।’

পিবিএ/এমআর

আরও পড়ুন...