পবিপ্রবিতে কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির দাবিতে আল্টিমেটাম

পিবিএ,দুমকি (পটুয়খালী): পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) আপ-গ্রেডেশন, বেতন-ভাতা বৃদ্ধিসহ ১০দফা দাবিতে ৩য়-৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীরা কর্তৃপক্ষ বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করে ১০দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে লাগাতার আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে । রবিবার (১১ অক্টোবর) সকালে পবিপ্রবি কর্মচারি পরিষদ সভাপতি মো: মজিবুর রহমান মৃধা সাধারণ সম্পাদক মো:বদরুজ্জামান জনি স্বাক্ষরিত ১০দফা দাবি সম্বলিত একখানা স্মারকলিপি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্তের দপ্তরে পেশ করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয়-চতুর্থ শ্রেণীর (ব্লক পোষ্ট) কর্মচারীদের বিধিমালা সংশোধন পূর্বক ধাপ/আপগ্রেডেশন বেতন-ভাতা স্কেল পরিবর্তণসহ পদোন্নতিসহ ১০দফা দাবি করা হয় স্মারক লিপিতে। ২০অক্টোবরের মধ্যে দাবি সমুহ মানা না হলে ২১অক্টোবর প্রশাসনিক ভবনের সামনে মানববন্ধন, ২২অক্টোবর বেলা-১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত ১ঘন্টার কর্মবিরতি, ২৮ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১১টা কর্মবিরতি, ২৯ অক্টেবর সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১টা কর্মবিরতি এবং এর মধ্যে দাবি মানা না হলে ১নভেম্বর থেকে লাগাতার কর্মবিরতি পালন ও অনশনের ঘোষণা দিয়েছে।

কর্মচারি পরিষদের সভাপতি মো: মজিবুর রহমান মৃধা বলেন, কর্মচারীদের সাথে কর্তৃপক্ষের বৈসম্যমূলক আচরণ কোনোভাবেই মেনে নেয়ার সুযোগ নেই। আমাদের যৌক্তিক দাবিগুলো আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরে যাবো না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত স্মারকলিপির প্রাপ্তি স্বীকার করে বলেন, কর্মচারিদের উত্থাপিত সুযোগ-সুবিধা প্রদানের সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। নিয়ম বহির্ভুত কোন অপ্রত্যাশিত সুযোগ সুবিধা দেয়া কারো পক্ষেই সম্ভব নয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চাকুরি বিধিমালার আলোকে ন্যহ্য প্রাপ্তি থেকে কেউ বঞ্চিত হলে সে বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করা হবে।

পিবিএ/সোহাগ হোসেন/এমআর

আরও পড়ুন...