পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যুতে চিকিৎসকের ওপর হামলা, আহত ৪

রাজন্য রুহানি,জামালপুর: জামালপুরের বকশীগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যুতে চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগ এনে চিকিৎসকের ওপর হামলা করেছে নিহতদের পরিবারের লোকজন। এতে দুজন চিকিৎসক ও দুজন কর্মচারী আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বকশীগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) দুপুর ১২ টার দিকে নীলাক্ষিয়ার ঝালোপাড়া গ্রামের একটি পুকুরে ডুবে যায় জান্নাত (৫) ও সিয়াম (৭) নামে দুই শিশু। তাদের উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার ওই দুই শিশুকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগ এনে ডাক্তার ও কর্মচারীদের ওপর হামলা করেন নিহত শিশুদের ক্ষুব্ধ স্বজনরা। হামলায় আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. নাজিম শাহারিয়ার, ডা. আবুল কালাম আজাদ, স্যানেটারি ইন্সপেক্টর মোস্তফা কামাল লিটন ও গার্ডেনার আনোয়ার শাহ রাজা আহত হন।

এলাকাবাসী জানান, মাঝিপাড়া গ্রামের গ্রামের রাশেদ মিয়ার মেয়ে জান্নাত ও আফাজ উদ্দিনের ছেলে সিয়াম বাড়ির পাশে ঝালোপড়া গ্রামের সালেহ আহমেদ ময়নার পুকুর পারে খেলাধুলা করছিল। হঠাৎ ওই দুই শিশু পুকুরে পড়ে যায়। তাদের উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় স্থানীয়রা।

নিহত দুই শিশুর পরিবারের দাবি, হাসপাতালে নিয়ে যাবার পরেও শিশু দুটি বেঁচে ছিল। অনেক ডাকাডাকির পর ডাক্তার এসেছে। সময়মতো ডাক্তার ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পেলে শিশু দুটির বাঁচার সম্ভাবনা ছিল। তবে হামলার কথা অস্বীকার করেছেন নিহত দুই শিশুর পরিবার। তারা বলেছেন, ক্ষুব্ধ স্বজনদের সাথে ডাক্তার-কর্মচারীদের কথা কাটাকাটি হয়েছে।

বকশীগঞ্জ প.প. কর্মকর্তা ডা. প্রতাপ নন্দী জানান, হাসপাতালে আনার আগেই ওই দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শিশুদের স্বজনরা চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগ এনে ডাক্তারদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. নাজিম শাহারিয়ার, ডা. আবুল কালাম আজাদ, স্যানেটারি ইন্সপেক্টর মোস্তফা কামাল লিটন ও গার্ডেনার আনোয়ার শাহ রাজা আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বকশীগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, ঘটনা তদন্ত করে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পিবিএ/এইচএস

আরও পড়ুন...