পৌর নির্বাচন: মনোহরদীতে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণা

পিবিএ,নরসিংদী: নরসিংদী জেলার মনোহরদী পৌরসভার নির্বাচন উপলক্ষে মঙ্গলবার (১৩ জানুয়ারি) শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণার মাঠ। প্রার্থীরা ভোটারদের মন জয় করতে দিয়ে যাচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, আওয়ামী লীগের পক্ষে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ প্রচারনায় অংশ নিলেও বিএনপি শিবিরে প্রকাশ্যে প্রচার প্রচারণায় উপজেলা বিএনপির আহবায়ক, সদস্য সচিবসহ প্রথম সারির কোন নেতৃবৃন্দকেও এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি নির্বাচনী মাঠে। সচেতন মহলের দাবি তাদের দলীয় কোন্দলের কারণে এক হয়ে তারা মাঠে নামতে পারেনি।

এ নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ছয়জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বদ্ধিতা করছেন। সাধারন ভোটরার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে অপেক্ষার প্রহর গুণছেন। ভোটকে কেন্দ্র করে পৌর এলাকা যেন উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। বর্তমান মেয়র ও আওয়ামী লীগ থেকে মনোনিত প্রার্থী মোহাম্মদ আমিনুর রশিদ সুজন পুনরায় বিজয়ী হতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। আমিনুর রশিদ সুজনকে আজও বিভিন্ন এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে দেখা গেছে। আওয়ামীলীগের কর্মীরা জানান, পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে জয়ের ব্যাপারে আমরা শতভাগ আশাবাদী। গত পাঁচ বছরে বর্তমান মেয়র পৌরসভায় যে উন্নয়ন করেছেন। সেদিক বিবেচনা করেই ভোটাররা স্বতস্ফুর্তভাবে নৌকায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন।

নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ আমিনুর রশিদ সুজন বলেন, ২য় ধাপে মনোহরদী পৌরসভার নির্বাচন হতে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নৌকা প্রতীক দিয়ে আমাকে পৌরবাসীর কাছে পাঠিয়েছেন। জনগণের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। নৌকায় ভোট দেবে বলে তাদের কাছ থেকে সেই প্রতিশ্রুতিও পাচ্ছি। আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। পুনরায় নির্বাচিত হলে বাকি উন্নয়ন কাজ এবং পৌরবাসীর ভাগ্যন্নোয়নের চেষ্টা করবো।

উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মো. আমিনুর রহমান সরকার দোলন নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি। ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী মাহমুদুল হক বলেন নিরবে ভোট প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। ভোটের মাঠ ভালো রয়েছে। জনগণও ভোটের অপেক্ষায় আছে। সুষ্ঠু পরিবেশে ভোট হলে ধানের শীষ বিজয়ী হবে। বিজয়ী হলেই স্বপ্নের পৌরসভা গড়বো।

ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল মান্নান এবং মোবাইল প্রতিকের স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমরান আহমেদকেও ভোট প্রচার প্রচারণা কাজে ব্যস্ত দেখা যায়।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, এবারই প্রথম ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মনোহরদী পৌরসভা নির্বাচন। ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত মনোহরদী পৌরসভায় মোট ভোট কেন্দ্র ৯টি। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ১৩ হাজার ৭৯৮জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ছয় হাজার ৫৮০ এবং নারী ভোটার সাত হাজার ২১৮ জন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, সকল প্রার্থীকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে প্রচার-প্রচারণা চালানোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

পিবিএ/খন্দকার শাহিন/জেডএইচ

আরও পড়ুন...