প্রথম আলোর সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা

পিবিএ,ঢাকা: রেসিডেন্টসিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থী নাইমুল আবরারের অবহেলাজনিত মৃত্যুর ঘটনায় দৈনিক প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার (৬ নভেম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল হকের আদালতে এ মামলার আবেদন করেন নাইমুল আবরারের বাবা মুজিবুর রহমান।

এর আগে দুপুরে ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজে অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী শামীম ফরহাদ সাংবাদিকদের বলেন, অনুষ্ঠানের নিরাপত্তার পুরো দায়িত্ব ছিল কিশোর আলোর, তাদের ব্যর্থতায় নাঈমুল আবরারের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নাঈমুল আবরারের মৃত্যুর ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবিতে রেসিডেনসিয়াল স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছে। আবরারের মৃত্যু দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড উল্লেখ করে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বিচার দাবি করেছেন তারা। এসময় সাবেক শিক্ষার্থীদের সঙ্গে রেসিডেন্সিয়ালের বর্তমান শিক্ষার্থী ও অবিভাবকরা একাত্মতা প্রকাশ করেন।

ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজ ওল্ড রেমিয়ান্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান বলেন, গত শুক্রবার (১ নভেম্বর) বিকেলের দিকে রেসিডেন্সিয়াল কলেজের মাঠে স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রথম আলোর অনুষ্ঠান দেখার জন্য ভিড় করেছিল। সাড়ে ৩টার দিকে যখন প্রোগ্রাম শেষের দিকে তখন হঠাৎ চিৎকার শুনলে দেখা যায় আবরার বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মাটিতে পড়ে আছে।

তখন আবরার বলছিল, তার বুকে অনেক ব্যথা করছে। সবাই তাকে তুলে মাঠের এক পাশে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। ডাক্তাররা যখন দেখলো আবরারের অবস্থা খুবই খারাপ তখন সঙ্গে সঙ্গে তাকে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলেন। তখন বিষয়টি স্কুল কর্তৃপক্ষ ও উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের জানানো হয়নি।

অনুষ্ঠান আয়োজকরা আবরারের অবিভাবক এবং কলেজ কর্তৃপক্ষ কারও সঙ্গে যোগাযোগ না করে মহাখালী নিয়ে গেলেন। তারা যখন বুঝলেন আবরারের অবস্থা খুবই খারাপ তখন পাশের সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে না নিয়ে মহাখালীতে নিয়ে গেলেন।

তিনি আরও বলেন, ছেলেটা মারা গেছে কিন্তু আমাদের কথা হচ্ছে ছেলেটাকে তাৎক্ষণিকভাবে স্কুলের সাহায্য নিয়ে যদি সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারতো। তারা কাউকে তথ্য না দিয়ে নিজেদের ইচ্ছেমতো কাজ করেছে।

গত শুক্রবার বিকালে কলেজ ক্যাম্পাসে কিশোর আলোর একটি অনুষ্ঠান চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মারা যায় ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী নাইমুল আবরার রাহাত (১৫)।

পিবিএ/বাখ

আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন