ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেখে বৃদ্ধকে খাদ্যসামগ্রী দিলেন ইউএনও

রাজন্য রুহানি, জামালপুর: লাল মিয়া (৭৪)। বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছেন তিনি। নানা রোগেও আক্রান্ত। বাজারে গ্যাসলাইট মেরামত করেন। দিনে ৫০ থেকে ১০০ টাকা উপার্জন হয়। তা দিয়েই চালান সংসার।

চলমান লকডাউনে এখন উপার্জনও হয়না। তিন সন্তানের জনক হলেও বৃদ্ধা স্ত্রীকে নিয়ে আলাদা থাকেন। ভরণপোষণ দেয় না সন্তানেরা। বয়স্ক ভাতা যা পান তা দিয়ে ওষুধ কিনতে হয়। মাঝেমধ্যে না খেয়েই দিন পার করেন।

জামালপুরের বকশীগঞ্জের পুরাতন গরুহাটি এলাকার বাসিন্দা এই বৃদ্ধের কষ্টমাখা জীবনের কথা ফেসবুকে লিখেন স্থানীয় এক যুবক। তা নজরে আসে ইউএনওর। তিনি মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) দুপুরে ওই বৃদ্ধকে খাদ্যসামগ্রী চাল, ডাল, লবণ, তেল ও আলু দেন। তাকে আর্থিক সহায়তাও করবেন বলে জানান ইউএনও মুনমুন জাহান লিজা।

খাদ্যসামগ্রী পেয়ে ওই বৃদ্ধ বলেন, “লকডাউনে কয়দিন না খায়েই আছিলাম। কেউ কিছুই দেয় নাই। এহন ইউএনও ম্যাডাম খাবার দিলেন। কয়ডা দিন বুইড়ে বুড়ি মিলে পেট ভইরে খাবার পামু।”

ইউএনও জানান, বৃদ্ধ লাল মিয়াকে প্রাথমিকভাবে কিছু খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। তার জন্য আর্থিক সহায়তার ব্যবস্থাও করা হবে।

আরও পড়ুন...