বানারীপাড়ায় একই পরিবারে ৩ জনকে হত্যা

পিবিএ, বরিশাল : বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার সলিয়াবাকপুর থেকে  একই পরিবারের তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁরা হলেন মারিয়াম বেগম (৭৫), মো. আলম (৬৫) ও মো. ইউসুফ (১৮)। পুলিশের ধারণা, তাঁদের খুন করা হয়েছে। বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

সকাল সাড়ে আটটার দিকে ওসি জাফর আহম্মেদ  বলেন,  শনিবার সকালে খবর পেয়ে তাঁরা সলিয়াবাদপুর গ্রামে গিয়ে তিনজনের লাশ উদ্ধার করেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, ঘরের ভেতর থেকে দুজনের ও বাড়ির পুকুর থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় একজনের লাশ উদ্ধার করে বানারীপাড়া থানার পুলিশ। এর মধ্যে ঘরের বারান্দায় বৃদ্ধ মরিয়মের, জামাতা আলমের মরদেহ ঘরের অন্য একটি কক্ষ থেকে এবং ইউসুফের হাত-পা বাঁধা মরদেহ পাওয়া যায় বাড়ির পুকুরে।

পুলিশ ও স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, বানারীপাড়া উপজেলার সলিয়াবাকপুর গ্রামের হাফেজ আবদুর রব কুয়েতের একটি মসজিদে ইমাম হিসেবে কর্মরত। বাড়িতে তাঁর বৃদ্ধ মা মারিয়াম বেগম ও বোনের ছেলে ইউসুফ থাকেন। দুদিন আগে আবদুর রবের ভগ্নিপতি পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি উপজেলার আকলম গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. আলম ওই বাড়িতে বেড়াতে আসেন। তিনজনই শুক্রবার রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন।

পুলিশের ভাষ্য, একতলা বাড়ির সব দরজা-জানালা বন্ধ ছিল। শুধু ছাদের সিঁড়ির দরজা খোলা পাওয়া যায়। দুর্বৃত্তরা আগে থেকেই ঘরে প্রবেশ করেছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডের পর তারা ছাদ দিয়ে পালিয়ে যায়। সকালে সাড়াশব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীরা থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁদের লাশ উদ্ধার করে।

বানারীপাড়া থানার ভরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিশির কুমার পাল বলেন, নিহত তিনজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

পিবিএ/জেডআই

আরও পড়ুন...