বিচ্ছেদে বাধ্য, বিয়ের দাবিতে ৩দিন ধরে যুবকের বাড়িতে তরুণী

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার একটি গ্রামে মহব্বত শেখ নামে এক যুবকের বিয়ের খবর পেয়ে তার বাড়িতে তিনদিন ধরে অবস্থান করছেন তরুণী। এরপর আত্মগোপনে চলে গেছেন ওই যুবক।
তরুণীর দাবি, ওই যুবকের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। বিয়ে না দিলে কঠিন পথ বেছে নেয়ারও হুমকি দিয়েছেন তিনি।

তরুণী (২১) জানান, মহব্বত শেখ নামে ওই যুবকের গ্রামে তার ফুফুর বাড়ি হওয়ায় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তবে এক বছর আগে বাবা-মা তাকে বিয়ে দেন। ১৫ দিন সংসার করার পর মহব্বত বিয়ের কথা বলে তাকে বিচ্ছেদে বাধ্য করেন। এরপর পারিবারিকভাবে বিয়ের কথা বলে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে জড়ান। সোমবার মহব্বতের বিয়ে হবে জানতে পেরে গত শনিবার বিকেলে তার বাড়িতে অবস্থান নেন তিনি।

তরুণী দাবি করেন, শনিবার রাতেও মহব্বত বাড়িতে তার সঙ্গে ছিলেন। তবে রোববার রাত থেকে তিনি পলাতক।

তরুণীর বাবা বলেন, তার মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক। তাকে পারিবারিকভাবে বিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু মহব্বত মেয়ের বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটান।

মহব্বতের মা বলেন, তার ছেলের সঙ্গে তরুণীর সম্পর্ক ছিল। তারা ছেলের বিয়ের জন্য প্রস্তাব পাঠান। কিন্তু সে সময় প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে মেয়েকে অন্য জায়গায় বিয়ে দেওয়া হয়। সোমবার ছেলের বিয়ের কথা শুনে মেয়েটি অবৈধভাবে তার বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে।

শৈলকুপা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, মেয়ে ও ছেলের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন...