ভালুকায় অবৈধ ইট ভাটায় অভিযান ও জরিমানা

সাজ্জাদুল আলম খান,ভালুকা (ময়মনসিংহ): ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ইট ভাটাতে ২৫ অক্টোবর সোমবার দুপুরে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।
ভালুকা সহকারী কমিশনার ভূমি (নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট) আব্দুল্লাহ আল বাকিউল বারী অভিযান চালিয়ে জানতে পারেন বিগত ১০ বছর যাবত লাইসেন্স ও পরিবেশ ছাড়পত্র বিহীন ইট ভাটাটি স্থাপন করে ইট সাপ্লাই করে যাচ্ছেন।

অভিযানে সহযোগিতা করেন ভালুকা মডেল থানা পুলিশসহ স্থানীয় এলাকাবাসী ও সাংবাদিক বৃন্দ। স্থানীয় ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ভালুকায় গড়ে ওঠা বেশিরভাগ ইটভাটাগুলোই অবৈধ।
অভিযানের অংশ হিসাবে উপজেলার বিরুনিয়া ইউনিয়নের চান্দরাটি মৌজার ৫ নং ওয়ার্ডে আনিসুর রহমান সবুজ এর এমবিসি ব্রিকস নামে ইট ভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমোদন না থাকায় এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ কৃষি খামার, মৎস্য খামার, বসতবাড়ি, বিভিন্ন স্কুল, কলেজ থাকায় ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

সরেজমিনে ২৬ অক্টোবর স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, ইট সাপ্লায়ের সময় ট্রাকের নিচে চাপা পরে এক কৃষকের গরু মারা গিয়েছিল এবং সৃজনে দিনরাত ইটের ট্রাক ও লড়ি চলাচলের কারণে রাস্তায় ধুলাবালি ও ইটের আদলা পরে থাকতে দেখা যায়, যা জনসাধারণের ও পরিবেশের জন্য মারাত্মকভাবে ক্ষতি ও হুমকির সম্মুখীন।

এ ব্যাপারে ৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার মজনু শেখ জানান, এমবিসি ইট ভাটা স্থাপনের পরে আমার এলাকায় বিকলাঙ্গ শিশু সন্তানের জন্মহার বেড়ে গেছে।

অবৈদ ইট ভাটা স্থাপনের বিষয়ে স্থানীয় ৫ নং বিরুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার রাব্বানীর কাছে বার বার ফোন করলেও ফোন রিসিভ করেন নি।

অবৈদ ইট ভাটা স্থাপনের বিষয়ে জানতে চাইলে মালিকের ছেলে ইশতিয়াক হাসান খান মিলু লাইসেন্স না থাকার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন শুধু আমাদেটা কেন? হাতে গুনা দু একটা ব্যাতীত ভালুকায় কোন ইট ভাটারই লাইসেন্স নাই তাহলে সব কটির জরিমানা করার ব্যাবস্থা করেন। তা না হলে আমরা ভাটার কাজ চালিয়ে যাব বলে সাব জানিয়ে দেন।
ভালুকা সহকারী কমিশনার ভূমি (নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট) আব্দুল্লাহ আল বাকিউল বারী জানান, পর্যায়ক্রমে সবগুলি ইট ভাটায় অভিযান চালানো হবে।

আরও পড়ুন...