মেহেরপুরে অস্ত্রসহ বহিস্কৃত আনসার সদস্য আটক

সাহাজুল সাজু,মেহেরপুর: মেহেরপুরের গাংনীতে র‌্যাবের অভিযানে মিল্টন হোসেন (২০) নামের এক বহিস্কৃত আনসার ও ভিডিপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত মিল্টন গাংনী উপজেলার কাথুলী ইউনিয়নের লক্ষী নারায়ণপুর ধলা গ্রামের সাহাবুদ্দীনের ছেলে।

বুধবার দিবাগত রাতে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স (হাসপাতাল) এর সামনে র‌্যাব-১২ এর মেহেরপুরের গাংনীস্থ ক্যাম্পের একটিদল অভিযান চালায়। অভিযানে মিল্টনকে ১টি বিদেশী পিস্তল,১রাউন্ড গুলি ও ১টি ম্যাগজিনসহ আটক করা হয়।

র‌্যাব সূত্র জানায়,বুধবার সন্ধ্যায় মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কের গাংনীর ঝিনেরপুল এর নিকট র‌্যাবের একটিদল অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে ঝোপের মধ্য থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ১টি বিদেশী পিস্তল ও ১টি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়। এসময় পিস্তলের মালিককে খুঁজতে ওই সন্ধ্যা রাতেই র‌্যাবের তৎপরতা শুরু হয় । পরে র‌্যাবের গোয়েন্দার তথ্য অনুয়ায়ি পিস্তল মালিককে আটক করতে গাংনী হাসপাতালের সামনে পূনরায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে মিল্টন হোসেন নামের এক যুবককে আটক করা হয়। এসময় আটককৃত মিল্টনের শরীরের জ্যাকেটের পকেট থেকে ১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

ঝিনেরপুলের কাছে পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার হওয়া বিদেশী পিস্তলের মালিক আটককৃত মিল্টন বলে নিশ্চিত হয় র‌্যাব। অভিযানে নেতৃত্ব প্রদান করেন র‌্যাব-১২ (গাংনী) ক্যাম্পের কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ।

এদিকে,পিস্তল, ম্যাগজিন ও গুলি রাখার অপরাধে মিল্টনের নামে গাংনী থানায় একটি মামলা হয়েছে এবং আজ বৃহস্পতিবার তাকে মেহেরপুর আদালতে সোপর্দ করা হয়।

উল্লেখ্য,মিল্টন একজন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত আনসার ও ভিডিপি সদস্য। অভিজ্ঞার কারণে তার গাংনী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের গুদামে নিরাপত্তা কর্মী হিসাবে চাকরী হয়েছিল। সরকারী ঘর পাওয়ে দেয়ার নামে সে এক দরিদ্র ব্যক্তির কাছ থেকে অনৈতিক উপায়ে টাকা নিয়েছিলেন। টাকা নেয়ার অপরাধসহ বেশ কিছু দ্রুতির কারণে এক বছর আগে সে চাকরী থেকে বহিস্কার হয়।

আরও পড়ুন...