যুক্তরাষ্ট্রে জাবি শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় একজন গ্রেফতার

পিবিএ,জাবি: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে দুর্বৃৃৃৃত্তের গুলিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ৩৮তম আবর্তনের শিক্ষার্থী মো. ফিরোজ-উল-আমিন (২৯) নিহতের ঘটনায় পোর্ট অ্যালেন অ্যান্টোনিও ডি ওয়াটস নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ইস্ট ব্যাটন রাউজ শেরিফের গোয়েন্দারা।

স্থানীয় সময় শুক্রবার এক দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দারা।

ইস্ট ব্যাটন রাউজ শেরিফের গোয়েন্দা দফতর সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয়রা ফিরোজের খুনের বিষয়ে গোয়েন্দাদের সাথে যোগাযোগ করে আসছিল এবং সম্ভাব্য ব্যক্তি হিসাবে পোর্ট অ্যালেন অ্যান্টোনিও ডি ওয়াটস সম্পর্কে তথ্য সরবরাহ করেছিলেন। এরপর শুক্রবার গোয়েন্দারা তাকে পূর্ব ব্যাটন রুজ প্যারিশে তুলে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ভিসিইউতে নিয়ে যায়। এ সময় ওয়াটস ফিরোজ-উল-আমিনকে গুলি করে হত্যা করার কথা স্বীকার করে।

এরপর গোয়েন্দারা ওয়াটসের বিরুদ্ধে মার্ডার, সশস্ত্র ডাকাত, একটি অস্ত্রের অবৈধ ব্যবহার এবং একটি অস্ত্রের কব্জা থাকার অভিযোগ এনে তাকে গ্রেফতার করে। বর্তমানে ওয়াটসকে ইবিআর প্যারিশ কারাগারে রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গেল শনিবার স্থানীয় সময় সকালে যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানার ব্যাটন রাউজ এলাকায় স্থানীয় একটি গ্যাস স্টেশনে ডাকাতির উদ্দেশ্যে এক ব্যক্তি যখন গ্যাস স্টেশনটিতে প্রবেশ করে তখন সেখানে একমাত্র কর্মরত ব্যক্তি ছিলেন ফিরোজ-উল-আমিন। ডাকাতির আগে সে ফিরোজকে গুলি করে হত্যা করে।

নিহত ফিরোজ-উল-আমিন লুইজিয়ানা স্টেস্ট ইউনিভার্সিটিতে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পিএইচডি করছিলেন। তাঁর বিশেষায়িত বিষয় ছিল সাইবার সিকিউরিটি। খ্যাতনামা বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক তৃতীয় গোল্ডেন জি রিচার্ডের অধীনে পিএইচডি করছিলেন তিনি। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি গাজীপুরের চৌরাস্তায়। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর তার মরদেহ দেশে আসার কথা রয়েছে।

পিবিএ/শাহিনুর রহমান শাহিন/এমএসএম


আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন