রংপুরে কারিগরি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত যুবদের মাঝে ব্যবসায়িক উপকরণ বিতরণ

মেজবাহুল হিমেল, রংপুর: দেশের প্রত্যেকটি উপজেলা পর্যায়ে যুবদের জন্য কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলার পরিকল্পনা সরকার হাতে নিয়েছে বলে জানিয়েছে রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান।

তিনি বলেছেন, স্বনির্ভর উন্নত বাংলাদেশ গড়তে যুবদের প্রশিক্ষিত জনশক্তিতে পরিণত করতে কাজ করছে সরকার। প্রশিক্ষিত যুবারাই দেশকে এগিয়ে নিচ্ছে। শুধু সাধারণ শিক্ষা নয় কারিগরি শিক্ষায় প্রশিক্ষিত ও দক্ষ যুবসমাজ গড়াই এখন সরকারের লক্ষ্য। এজন্য জেলার বাহিরেও প্রতিটি উপজেলাতে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে দেশে বেকারত্ব কমে আসবে। সঙ্গে প্রশিক্ষিত যুবাদের সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে রংপুর জেলা প্রশাসক ভবনের সম্মেলন কক্ষে কারিগরি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত যুবদের মাঝে ব্যবসায়িক উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যুবদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি প্রকল্পের আওতায় ভিএসও ইন বাংলাদেশ ও মহিদেব যুব সমাজ কল্যাণ সমিতির অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে।

ডিসি আসিব আহসান বলেন, বাংলাদেশ পৃথিবীর নবম জনবহুল দেশ। ১৬০ মিলিয়ন মানুষের আবাসস্থল বাংলাদেশ, যার এক তৃতীয়াংশ জনগোষ্ঠী যুব এবং অর্ধেক নারী। এই এক তৃতীয়াংশ যুব জনগোষ্ঠীর যথাযোগ্য কর্মসংস্থান বাংলাদেশকেঅতিদ্রতু মধ্যম আয়ের সমৃদ্ধিশালী দেশে পরিণত করতে পারে। জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট লক্ষমাত্রা-২০৩০ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত রুপকল্প-২০২১ কে সামনে রেখে কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যুবদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জেলার ১৪০ জন নারী ও ১৬৬ জন পুরুষ মোবাইল ফোন সার্ভিসিং, ইলিকট্রিক্যাল হাউস ওয়ারিং, এসি-ফ্রিজ সার্ভিসিং, কার ড্রাইভিং, পাট জাতপণ্য উৎপাদন, ইনকিউবেটর, গার্মেন্টস ঝুট দিয়ে পাপস তৈরি, কম্পিউটার আইসিটি, সোলার টেকনোলোজি, হার্টিকালচার নার্সারি, দেশী মুরগী ও ছাগল-ভেড়া পালনরে প্রশিক্ষণ পেয়েছেন। এতে করে দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনগোষ্ঠী বাড়ছে। এই প্রশিক্ষিত যুবারা এখন আত্ম-কর্মী হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পারবে। কেউ যাতে প্রশিক্ষণ নিয়ে উপকরণের অভাবে পিছিয়ে না পরে এজন্য সরকার তাদের ব্যবসায়িক উপকরণ দিচ্ছে। তবে শুধু সরকারের আশায় না থেকে যুবসমাজকে নিজেদের প্রচেষ্টা থেকে সামনে এগিয়ে যাবার স্বপ্ন দেখতে হবে। স্বপ্ন দেখা মানুষেরা কষ্ট করলে লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. গোলাম রব্বানী, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) রংপুর অফিসের সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ার) মো. ফারুক আলম, পীরগঞ্জ উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. আব্দুর রশিদ, রংপুর প্রেসক্লাব সভাপতি রশীদ বাবু, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক সরকার প্রমুখ। এতে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর রংপুরের উপ-পরিচালক মো. দিলগীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন ইয়ুথ এমপ্লয়মেন্ট প্রজেক্ট’র কো-অর্ডিনেটর মো. ইলিয়াস আলী।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীকে স্মরণীয় রাখেতে কারিগরি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত যুবদের ব্যবসায়িক উপকরণ প্রদান ও উৎসাহিত করতে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে রংপুর জেলার মিঠাপুকুরের ১০০, পীরগঞ্জের ১০৬ এবং তারাগঞ্জ উপজেলার ১০০ জন নারী ও পুরুষকে ১২টি বিষয়ে আবাসিক ও অনাবাসিক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। প্রশিক্ষণ শেষে প্রত্যেক যুব উদ্যোক্তাকে ব্যবসা শুরু করার জন্য ব্যবসায়িক উপকরণ প্রদান ও ব্যবসা সফল ভাবে পরিচালনার জন্য কাউন্সিলিং-মেন্টরিং সুবিধা প্রদান করা হয়।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...