রাতের খাবার দেরিতে খাওয়ার বিপদ

ক্যান্সার
দেরিতে খেলে রাতের খাবার, হতে পারে ক্যান্সার

পিবিএ ডেস্ক: বেঁচে থাকার প্রয়োজনে আমাদের খাবার খেতে হয়। কিন্তু সে খাবার খাওয়ারও একটা নির্দিষ্ট সময় আছে। নিয়ম ও সময় না মেনে খাবার খেলে দেখা নানা স্বাস্থ্য ঝুঁকি, এমনকি ক্যান্সারের ঝুঁকিও রয়েছে। আবার খাবার খাওয়ার পরপরই শুয়ে পড়া স্বাস্থ্য সম্মত নয়। ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত দুই ঘন্টা আগে খাবার সেড়ে নেয়া প্রয়োজন বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।

সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব ক্যান্সার-এ প্রকাশিত বিজ্ঞানীদের এই সংক্রান্ত একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। তাতে লেখা হয়েছে যে, দেরি করে রাতের খাবার খেলে ব্রেস্ট ও প্রস্টেট ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে।

৬২১ জন প্রস্টেট এবং ১ হাজার ২০৫ জন ব্রেস্ট ক্যান্সার রোগীর ওপর পরীক্ষাটি চালিয়ে এই ফলাফল পাওয়া গেছে। স্পেনের গবেষকদের একটি দল এই গবেষণাটি পরিচালনা করেন।

অংশগ্রহণকারীদের ঘুমের সময়সূচি এবং রাতের খাবার সময় সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করেছেন তারা। পরিবারে কারও ক্যান্সার আছে কি না, তাদের আর্থ সামাজিক অবস্থান এবং তাদের বসবাসের পরিবেশে ক্যান্সার হতে পারে কি না ইত্যাদি বিষয়গুলোও খতিয়ে দেখা হয়।

ফলাফল হিসেবে তারা জানান, দেরি করে রাতের খাবার খেলে প্রস্টেট ও ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

গবেষণায়, প্রস্টেট ক্যান্সারের ক্ষেত্রে দেখা গেছে, রাত ৯টার আগে যারা রাতের খাবার খেয়েছেন বা খাবার ২ ঘণ্টা পরে ঘুমোতে গেছেন তাদের এই রোগের ঝুঁকি ২৬ শতাংশ কম ছিল।
একইভাবে, নারীদের মধ্যে যারা রাত ১০টার আগে রাতের খাবার সেরে নেন তাদের মধ্যে ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা ১৬ শতাংশ কম থাকে।

গবেষকরা জানান, দেরি করে রাতের খাবার খেলে এবং খাবার পরেই শুয়ে পড়লে শরীরের সার্কাডিয়ান ছন্দ ব্যাহত হয়। যার ফলে বিভিন্ন জৈব প্রক্রিয়া যেমন ঘুম, হর্মোনের কার্যকারিতা, শক্তিমাত্রা এবং শরীরের তাপমাত্রা ভারসাম্য হারায়। ফলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায়, টিউমার হওয়ার প্রবণতা বেড়ে যায়।

পিবিএ/এএইচ

আরও পড়ুন...