‘শরীর নিয়ে মন্তব্য করা বন্ধ করুন’ ট্রোলিং নিয়ে এষা গুপ্তা

পিবিএ/বিনোদন ডেস্কঃ এষা গুপ্তা বরাবরই সাহসী। ক্যামেরার সামনে হোক কিংবা পিছনে। ক্যামেরার সামনে কায়া নিয়ে তাঁর কোনও দিনই অসুবিধে ছিল না। নেইও। একাধিকবার টপলেস ফটোশুটে দেখা গিয়েছে এষাকে। ট্রোলডও হয়েছেন বহুবার। সিনেমার পর্দায় সেরকম একটা দেখা মেলে না তাঁর। তবে, সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় তিনি। ট্রোলের জবাব দিতেও এষার জুড়ি মেলা ভার। সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর বেশ কিছু ছবির জন্য ট্রোল করা হয়েছে তাঁকে। এতে বেজায় চটেছেন এই মডেল অভিনেত্রী।

এক সাক্ষাৎকারে তাঁকে ট্রোলড প্রসঙ্গে জিজ্ঞেস করা হলে এষা আরও রেগে যান। বলেন, “কখনও কখনও আমি ভাবি, কী চলতে থাকে এদের মনে? মনে হয়, এদের সারাদিনে কোনও কাজ নেই। আরে বাপু! সমস্যাটা কোথায়? কারও সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়ালে লেখার আগে এরা কি ভাবে না, যে যার সম্পর্কে লিখছে, তার কেমন লাগতে পারে? নিজেরা নিজেদের জীবনে সুখী না থাকলে যা হয় আর কী! অন্যকে নিয়ে চর্চা করা শুরু করে দেয়। তুমি বা তোমরা আমায় খাওয়াচ্ছ না, পড়াচ্ছ না কিংবা টাকা-পয়সা দিয়ে আমায় সাহায্যও করছ না… তাই তোমাদের মতামতের আমার দরকারও নেই!” যারা ট্রোলড করেছেন, তাঁদেরকে এমন শব্দবাণেই বিঁধেছেন এষা।

এষার মতে, এসব ট্রোল এক্কেবারে পাত্তা না দেওয়াই উচিত। এর সঙ্গে তিনি সময়ের সদ্ব্যবহার করার উপদেশও দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, কিছু কাজের কাজ কর লোকের ওয়েব ওয়ালে বাজে কমেন্টে করা থেকে। বিশ্বে অনেক কিছু হচ্ছে। কোথাও যুদ্ধ হচ্ছে, অনেক উদ্বাস্তু রয়েছে যাদের সাহায্যের প্রয়োজন। এসব নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে… কারও শরীর নিয়ে মন্তব্য করছ! অশোক নন্দার ‘ওয়ান ডে: জাস্টিস ডেলিভারড’ ছবিতে দেখা যাবে এষাকে। ১৪ জুন মুক্তি পাচ্ছে এই ছবি। এষাকে একজন রাফ অ্যান্ড টাফ পুলিশ অফিসারের ভূমিকায় দেখা যাবে।

পিবিএ/এমআর

আরও পড়ুন...