শেষ সময়ে জমে উঠছে ধুনটের ইউপি নির্বাচন

আব্দুল হামিদ,বগুড়া: চা চামচের টাকটুক শব্দে জমে উঠছে বগুড়ার ধুনট উপজেলার ইউপি নির্বাচন। পোষ্টারে ছেয়ে গেছে নির্বাচনী এলাকা। প্রার্থীরা ছুটছে ভোটারের দ্বারে দ্বারে। শোনাচ্ছে নানান আশার বানী। কেউ বলছে বৃদ্ধদের কার্ড করে দিবো। কেউ বলছে যুবকদের প্রযুক্তিগত সহযোগিতা দিবো, আবার কেউ এলাকার সার্বিক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। আর এভাবেই ভোটারের মন গলানোর চেষ্টা করছে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীরা।

সরেজমিনে উপজেলা ঘুরে দেখা যায়, ভোর থেকে মধ্যেরাত পর্যন্ত ভোটারের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীরা। ভোটারের গাঁ নাড়িয়ে শুনাচ্ছেন নানা আশার বানী। উঠান বৈঠক আর মিছিলে ব্যস্ত সময় পার করছে এসব প্রার্থীরা। ভোটাররা পছন্দের প্রার্থীর পিছে ছুটছেন। করছে মিছিল করছে উঠান বৈঠক। এমন ব্যস্ততার মধ্যে শরীরে অলসতা চলে আসলেই বসে পড়ছে চা’র দোকানে। কারণ এখন অলসতা আসলে চলবে না। ভোটারের কাছে যেতে হবে । পুরো এলাকা ঘুরতে হবে । প্রার্থী নিজেও চা খাচ্ছেন আবার ভোটারদেরও খাওয়াচ্ছেন। চা’র চুমুকে শরীর চাঙ্গা করে প্রার্থীরা আবার মাঠে নামছেন। ভোটারেরাও নিজ বন্ধুদের সাথে আলাপ সেরে নিচ্ছেন কাকে দিবে ভোট।

ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়, যে এলাকার উন্নয়ন করবে। যে এলাকাকে মাদক মুক্ত করবে, তাকেই ভোট দিবো। যুবকরা বলছে যে যে যুবকদের নিয়ে কাজ করবে। তাকেই ভোটা দিবো। নারী ভোটেররা বলছেন যে নারী বান্ধব সমাজ গড়ে তুলতে পারবে তাকেই ভোট দিবো।

নির্বাচন সুষ্ঠ করতে জেলা প্রশাসন প্রার্থীদের নিয়ে করেছে আইনশৃঙ্খলা ও আচরণবিধি মতবিনিময় সভা। ভোট সুষ্ঠ করতে প্রার্থীদের সহযোগিতা চেয়েছে। সাথে কোন প্রার্থী আইন ভঙ্গ করলে সাথে সাথে নেওয়া হবে আইনানুগ ব্যবস্থা। এমনি হুশিয়ার করেছেন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বলেন, আগামী ২৮ নভেম্বর উপজেলায় ১০টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হবে। যাতে চেয়ারম্যান পদে ৪৯ জন সংরক্ষিত আসনে ১২০ জন। সাধারণ ওয়ার্ড প্রার্থী ৩৮৩ জন লড়ছে। এবছর ১০টি ইউনিয়নে ২ লক্ষ ২৬ হাজার ৩৭৫ জন ভোটার ভোটার অধিকার প্রয়োগ করবে। তারমধ্যে পুরুষ ১ লক্ষ১২ হাজার০৬০ জন ও নারী ১ লক্ষ ১৪ হাজার ৩১৫ জন।

আরও পড়ুন...