সরিষাবাড়িতে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর ওপর হামলা

রাজন্য রুহানি, জামালপুর: জামালপুরের সরিষাবাড়িতে সন্ত্রাসী হামলায় জানাজায় অংশ নেয়া পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ফজলুল হক খান আহত হয়েছেন। আহত ফজলুল হক খানকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

ফজলুল হক খান আগামী ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য সরিষাবাড়ি পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের বাউসি পপুলার এলাকার বাসিন্দা আব্দুল কুদ্দুসের জানাজায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

মুঠোফোনে প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় মেয়র প্রার্থী ফজলুল হক খান জানান, ‘সকাল ১১টার দিকে পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আব্দুল কুদ্দুসের জানাযা নামাজে যাই। নামাজ শুরু হবার আগে কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমার ওপর অতর্কিত হামলা চালায় প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থী মনির উদ্দিনের লোকজন। মনির উদ্দিনের ভাতিজা গুদু আমার মাথায় আঘাত করলে আমি মাটিতে পড়ে যাই। দেশীয় অস্ত্রসহ নিয়ে ওরা আমার ওপর হামলা চালায়। মুসুল্লিরা আমাকে উদ্ধার করে সরিষাবাড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে আমাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।’

এ বিষয়ে মেয়র প্রার্থী মনির উদ্দিন জানান, ‘ফজলুল হক খানকে কে বা কারা হামলা করেছে তা আমার জানা নেই। আমার কোনো ভাতিজা বা আমার কোনো সমর্থক এ ঘটনার সাথে জড়িত নয়।’

উল্লেখ্য, আগামী ৩০ জানুয়ারি সরিষাবাড়ী পৌরসভায় নির্বাচনে তিনজন মেয়র প্রার্থী যথাক্রমে আওয়ামীলীগ মনোনীত উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মনির উদ্দিন (নৌকা), বিএনপি মনোনীত উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক ও সাবেক মেয়র এ কে এম ফয়জুল কবীর তালুকদার শাহীন (ধানের শীষ) এবং বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী পৌর বিএনপির সহসভাপতি ও সাবেক মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) ফজলুল হক খান (নারিকেল গাছ) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...