সহকর্মীকে ধর্ষণচেষ্টা, প্রধান শিক্ষক বহিষ্কার

রাজন্য রুহানি,জামালপুর: জামালপুরের ইসলামপুরে সহকর্মী শিক্ষিকাকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে বহিষ্কার হয়েছেন ফরুকুজ্জামান বিপ্লব নামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষক।

ওই ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক উপজেলার চরপুটিমারী ইউনিয়নের টাবুরচর শেখের পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত।

ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় ওই বিদ্যালয়ের নির্যাতিতা শিক্ষিকা বিচার চেয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও জেলা শিক্ষা অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ করলে প্রধান শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার জন্য প্রতিটি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দেন। এরই ধারাবাহিকতায় চরপুটিমারী ইউনিয়নের টাবুরচর শেখের পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ফরুকুজ্জামান বিপ্লব গতবুধবার বিদ্যালয়ে আসেন। ওই বিদ্যালয়ের ‘আ’
আদ্য অক্ষরের এক সহকারী শিক্ষিকাও আসেন। এসময় তাকে একা পেয়ে বিদ্যালয়ের রুমে ধর্ষণচেষ্টা করেন।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ ফেরদৌস ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, বৃহস্পতিবার প্রাথমিক পর্যায়ে তদন্ত করে আমরা অভিযুক্ত অভিযোগের সত্যতা পাই। পরে বিষয়টি আমরা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ডিপিও) স্যারকে জানাই এবং ওই শিক্ষিকাকে স্যারকে নিকট পাঠাই।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ফারুকুজ্জামান ওই সহকারী শিক্ষিকাকে উত্যাক্ত করে আসছিল। ঘটনাটি ভোক্তভোগী শিক্ষিকা ক্লাস্টার এটিওকেও অবহিত করেছিলেন। কিন্তু কোন বিচার হয়নি।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ফারুকুজ্জামানের সাথে মোবাইল ফোনে একাধিক বার যোগাযোগের চেষ্ঠা করা হলে তিনি ফোন রিসিভি করেনি এবং পরবর্তী সময়ে তিনি তার সকল ফোন নাম্বার বন্ধ করে রাখেন। তাই তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

জেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক এ বিষয়ে বলেন, আমরা ওই ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিককেনসাময়িক বহিষ্কার করেছি। তিন সদস্য তদন্ত কমিটি করেছি। বিষয়টি তদন্ত করে সত্যতা প্রমাণিত হলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

 

আরও পড়ুন...