সাতক্ষীরার সদরে করোনা আক্রান্তের বাড়ি লকডাউন

পিবিএ,সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরার সদরে করোনাভাইরাস(কোভিড-১৯) আক্রান্ত সেলিম হোসেনের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার(২২ মে) সন্ধ্যারাতে তার নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে তিনি করোনা আক্রান্ত বলে জানা যায়।এছাড়াও কলরোয়ায় একজন ঢাকা ফেরত করোনা পজিটিভ রোগী সনাক্ত হয়েছে।এনিয়ে সাতক্ষীরায় মোট ৩১ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে।

শনিবার(২৩ মে) সকাল সড়ে ৮টায় সদর উপজেলার দেবনগর গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সদর সার্কেল মির্জা সালাহউদ্দিন তার (করোনা আক্রান্তের) বাসায় উপস্থিত হয়ে বাসাটি লকডাউন করেন।

এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন সদর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আসাদুজ্জামান এবং অন্যান্য অফিসার ও ফোর্স বৃন্দ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মির্জা সালাহউদ্দিন করোনা আক্রান্ত সেলিমের সার্বিক খোঁজ খবর নেন এবং তাকে জানান যে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ তার সাথে রয়েছে। তিনি সেলিমকে দৃঢ় মনোবলের সাথে এই পরিস্থিতি মোকাবেলার পরামর্শ দেন। করোনা আক্রান্ত সেলিম এর মাধ্যমে সাতক্ষীরা জেলার অন্য কেউ সংক্রমিত হয়েছে কিনা এ ব্যাপারে বিস্তারিত খোঁজখবর নেওয়া হয়।

জানা যায় যে, সেলিম ভোলার খেয়াঘাটে অবস্থিত ‘সাগরিকা ফিড মিল’ প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তিনি গত ১৮ মে রাতে সাতক্ষীরা আসেন। তিনি বাড়ি আসার পরে কিছুটা অসুস্থ অনুভব করায় পরের দিন অর্থাৎ ১৯ মে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনার টেস্ট করান। মেডিকেল কলেজে যাওয়ার সময় তিনি তার বন্ধু মাসুমের বাইসাইকেলটি ব্যবহার করেন। টেস্ট করে আসার পরে তিনি বাইসাইকেলটি আবার মাসুমের কাছে হস্তান্তর করেন। এজন্য, করোনা প্রতিরোধকল্পে এবং এলাকাবাসীর সর্বোত্তম স্বার্থে মাসুমের দেবনগরের বাসাটিও লকডাউন করা হয়।
এ সময় এলাকাবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার এবং সাতক্ষীরা জেলা পুলিশকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানানো হয়।
পিবিএ/এস,এম,হাবিবুল হাসান/এএম

আরও পড়ুন...