সিরাজগঞ্জে অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ন নির্বাচনের দাবিতে এক মঞ্চে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা

সোহাগ হাসান,সিরাজগঞ্জ: অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউপিতে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতিকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে ঐক্যবন্ধ হয়েছেন ৪ স্বতন্ত্র প্রার্থী।

শুক্রবার সকালে বহুলী ইউপি চত্বরে এক মঞ্চে সংবাদ সন্মেলন করে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা এ ঘোষনা দেন।

প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার গাজী আব্দুল বারী তালুকদার (ঘোড়া), বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা রুহুল আমিন (চশমা), স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা ফরহাদ হোসেন (আনারস) ও বিএনপি নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু সালেহ বাবু (মটরসাইকেল)।

সংবাদ সন্মেলনে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির অর্থ সম্পাদক ফিরোজ মাহমুদ, বহুলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ফিরোজ আলম ও বহুলী ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন রোকন।

সংবাদ সন্মেলনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বক্তারা বলেন, আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু প্রচারনার শুরু থেকেই বহিরাগত ক্যাডারদের ভাড়ায় এনে ইউনিয়নের নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করছে। তারা স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পোস্টার ছিড়ে ফেলছে, নির্বাচনী সভায় হামলা করছে, প্রচার মাইক ভাংচুর করছে। বাড়ি বাড়ি গিয়ে কর্মী-সমর্থকদের হুমকি দিচ্ছে, লাঠিসোটা হাতে প্রচার মিছিল করে এলাাকায় আতংক সৃষ্টি করছে। মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করা হচ্ছে। পাশাপাশি নির্বাচনের দিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর ব্যালট তারা হাতে নিয়ে নেবে, শুধু সদস্য প্রার্থীদের ভোট হবে বলে প্রচার করে বেড়াচ্ছে। যা একটি অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ন নির্বাচনের বড় বাধা।

স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বলেন, জনগনের ভোটাধিকার আদায়ের জন্য সবাই এক মঞ্চে এসেছি। আপনারা যাকে খুশি তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করুন। কিন্তু সন্ত্রাসী ও এলাকায় ত্রাস সৃষ্টিকারীকে বর্জণ করতে হবে।

প্রার্থীরা আরও বলেন, গত কয়েক দিনে নৌকার প্রার্থী এলাকায় যে সকল অপকর্ম করেছে সে সব চিত্র তুলে ধরে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও রিটানিং কর্মকর্তার কাছে আলাদা আলাদা ভাবে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। আশা করছি সুষ্ঠ নির্বাচনের স্বার্থে প্রশাসন প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহন করবেন। এরপরও যদি কেউ এলাকার শান্তি বিনষ্ট করে তাহলে ঐক্যবন্ধ ভাবে তাদের প্রতিহত করার ঘোষনা দেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।

এ বিষয়ে জানতে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু’র মোবাইলে ফোন করা হলেও তিনি ধরেননি।

দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১১ নভেম্বর এ ইউপিতে ভোট হবে। এখানে চেয়ারম্যান পদে মোট ৫জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।

 

আরও পড়ুন...