সুনামগঞ্জে অপহরণ মামলায় শ্রমিকলীগ নেতা গ্রেফতার

পিবিএ,সিলেট: নৌপথে ব্যবসায়ীসহ তিন ব্যক্তিকে অপহরণ মামলায় সুনামগঞ্জ জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি সেলিম আহমদকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) দুপুরের দিকে সুনামগঞ্জ জেলা শহরের বাসা থেকে গ্রেফতারের পর সদর মডেল থানায় তাকে সোপর্দ করে ডিবি পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে অতিরিক্ত ডিআইজি ও সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান গ্রেফতারের তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে বলেন, তাহিরপুরে গেল বুধবার রাতে নৌপথে ব্যবসায়ীসহ তিনজনকে অপহরণে সম্পৃক্ততা নিশ্চিত হওয়ার পরই তাকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।

গ্রেফতার সেলিম তাহিরপুরের বাদাঘাট ইউনিয়নের মোদেরগাঁও গ্রামের মৃত আমিন উদ্দিনের ছেলে ও বর্তমান ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিনের ভাই এবং জাদুকাটা বালু মহাল একাংশের ইজারাদার।

সেলিমসহ এ অপহরণ মামলায় এ পর্যন্ত তিনজন গ্রেফতার হয়েছেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের প্রয়াত ইউপি চেয়ারম্যান মোগেরগাঁও গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে মোর্শেদ আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মোর্শেদ সেলিমের আপন চাচাতো ভাই।

প্রসঙ্গত, ২০০২ সালে জাদুকাটা নদী তীরবর্তী বিন্নাকুলিতে বালু পাথর বাহি নৌকায় চাঁদাবাজিতে বাঁধা দিতে গেলে তৎকালীন থানার ওসি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও), থানা পুলিশের উপর সেলিম আহমদ এবং তার পরিবারের লোকজন হামলা করে। ওই চাঁদাবাজি ও পুলিশ এ্যাসল্ট মামলায় ২০০২ সালে সেলিম কয়েকমাস জেল হাজতে ছিলেন। পরবর্তীতে বিএনপি সরকারের শাসনামলে সুনামগঞ্জ-১ আসনের বিএনপি দলীয় এমপি নজির হোসেন ওই মামলাটি নিষ্পক্তি করিয়ে দেন।

মামলা ও পুলিশ সূত্র জানায়, ১০ লাখ টাকা চাঁদা না পাওয়ায় গত বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় তাহিরপুর উপজেলার সংসার হাওড় তীরের মন্দিয়াতা গ্রামের সামনে থাকা বিআইডব্লিউটিএর জেটিতে থাকা তিনজনকে মারপিট করে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করা হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে সাতজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৭-৮ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন।

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের হাসন নগরের মৃত রাজা মিয়ার ছেলে অপহৃত ও শারীরিক নির্যাতনের শিকার ব্যবসায়ী অলিউর রহমান মামলাটি করেন। মামলার বাদী অলিউর রহমান গণমাধ্যমকে জানান,সেলিম এ অপহরণ ঘটনার মূলহোতা; তার মদদেই আমাদের অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে মোদেরগাঁও গ্রামে নিয়ে এসে একটি বাড়িতে আটকে রাখে। সেখানে রাতভর শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে প্যাডে ও সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেয় অপহরণকারী চক্র।।

আরও পড়ুন...