সুবর্ণচরে যৌতুকের জন্য গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ

পিবিএ,কোম্পানীগঞ্জ: নোয়াখালীর সুবর্ণচরে মারিয়া আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তার স্বামী অভিযুক্ত মো.জামাল পলাতক রয়েছে।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) সকালে লাশের ওই গৃহবধূর সুরুত হাল করেছে সুধারাম থানা পুলিশ। একই দিন বিকালে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার রাতে উপজেলার চর হাসান গ্রামে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার আগামীকাল মামলা দায়ের করবে বলে জানা যায়।

নিহতের স্বজনরা জানান, গত সাড়ে চার বছর আগে সুবর্ণচরের চর হাসান গ্রামে সফু তালুকদারের ছেলে জামাল উদ্দিনের সাথে পাশের গ্রামের চর রশিদের মৃত আবুল কালামের মেয়ে মারিয়া আক্তারের বিয়ে হয়।

বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য ও পারিবারিক বিরোধের  জেরে গৃহবধূকে স্বামী ও তার শ্বাশুড়ি, ননদ ও দেবর মিলে মঙ্গলবার রাতে গৃহবধুকে মারধর করে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। কিন্তু তারা বিষখেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। পরে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেল ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এসময় হাসপাতালে লাশ রেখে স্বামী ও তার স্বজনরা পালিয়ে যায়।

নিহতের স্বজনরা আরও অভিযোগ করেন, স্বামী ও শ্বশুর পরিবারের নির্যাতনের কারণে এর আগেও সে থানায় দুইটি জিডি করেছে। চরজব্বর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো.ইব্রাহিম খলিল জানান, যেহেতু হাসপাতালে মারা গেছে মামলাও সেখানে হবে এবং তারা ময়না তদন্ত রিপোর্টের পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ বিষয়ে সুধারাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল বাতেন জানান, লাশের সুরুত হাল করে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

পিবিএ/রহমত উল্যাহ/ইকে

আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন