‘সুষ্ঠু নির্বাচন না হওয়ার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে আ. লীগ’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন যেন না হয় সেজন্য আওয়ামী লীগ উঠে পড়ে লেগেছে।

তিনি দাবি করে বলেন, বর্তমান অবৈধ সরকার দিনে ভোট করতে ভয় পায়। তারা নিশিরাতে জাল ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় টিকে আছে। তাই আরেকটিও নিরপেক্ষ-সুষ্ঠু নির্বাচন যেন না হয় সেজন্য উঠে পড়ে লেগেছে, নানা কথা বলছে।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির অঙ্গ সংগঠন ওলামা দলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

রিজভী বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে কী হবে তা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানেন। এজন্যই তিনি এসব কথা বলছেন। গণতন্ত্র ফিরে আসলে তাদের দুঃশাসন টিকবে না। গণতন্ত্র ফিরে আসলে তাদের জন্য বিপর্যয়। এজন্য তিনি বিএনপিকে নিয়ে নানান উল্টা-পাল্টা কথা বলছেন।

রাষ্ট্রের প্রতিটি খাতে সরকার অবাধে লুণ্ঠনের স্বর্গরাজ্য প্রতিষ্ঠা করেছে বলে দাবি করেছেন রিজভী। তিনি বলেন, এ স্বর্গ থেকে বিদায় হতে চান না বলেই আজ ওবায়দুল কাদের বলছেন- বিএনপির মাথা থেকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ভূত নামাতে হবে। আবার আইনমন্ত্রী বলেছেন- বিএনপিকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বাড়ি থেকে সরে আসতে হবে। আসলে আইনমন্ত্রী তো কোনোদিন তার এলাকায় ভোটে জিতবেন না। বিনা ভোটেই নির্বাচিত হতে হবে। এ কারণে তারা একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন চান না।

যারা জনগণের ভোটকে সবচেয়ে বেশি ভয় পায়, তারা নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সমালোচনা করবে বলে উল্লেখ করেন বিএনপির এই নেতা। তিনি বলেন, তাদের ক্ষমতার সিংহাসনের নরম গদিটা ভেসে যাবে। এ কারণেই বিএনপিকে বলছে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি থেকে সরে আসতে হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, ওলামা দলের আহ্বায়ক মাওলানা শাহ মো. নেছারুল হক ও সদস্য সচিব মাওলানা মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার প্রমুখ।

আরও পড়ুন...