স্বামীর বাড়িতে গিয়ে দ্বিতীয় বিয়ের প্রতিবাদ করায় সতিনের মারধরে আহত ৪

আব্দুল বাশির,চাঁপাইনবাবগঞ্জ: চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে স্বামীর ২য় বিয়ের প্রতিবাদ করায় স্ত্রী, শ্যালিকা,শাশুড়ী ও ছেলেকে মারধর করেছে স্বামী,সতিনসহ অন্যরা। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার উপজেলার চৌডালা ইউনিয়নের ইসলামপুর দিয়াড়াপাড়ায়। এ ঘটনায় গোমস্তাপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে মারধরের শিকার ওই গৃহবধুর পরিবার।

থানায় করা অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে,উপজেলার চৌডালা ইউনিয়নের ইসলামপুর দিয়াড়াপাড়ার আব্দুল বাসেদের প্রবাসী ছেলে মোশারফের সাথে শিবগঞ্জ উপজেলার কয়লাবাড়ি গ্রামের মৃত আলাউদ্দিনের মেয়ে রানি বেগমের সাথে প্রায় ২১ বছর আগে বিয়ে হয়। ওই দম্পতির ১৭ বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। এরপরও সে ১ম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া আরেকটি বিয়ে করে বিদেশ চলে যায়। দীর্ঘদিন পর গত ১৮ জুন সে বাড়ি ফিরে এলে গত মঙ্গলবার তার ১ম স্ত্রী,শ্যালিকা,শাশুড়ী ও ছেলে তার সাথে দেখা করতে গেলে তাদের বেদম প্রহার করা হয়। মারধরের শিকার হলে তারা ৯৯৯ এ ফোন দিলে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বর্তমানে তাঁরা এখনও মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মোশারফের ২য় স্ত্রী হাবিবার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার স্বামীর বাড়ি এসে আমার সন্তানকে, আমার সতিন মারধর করছিল। তাই আমরা সকলে মিলে তাদের পিটিয়েছি। আপনাদের না মেরে আপনার সন্তানকে কেন মারধর করলো?এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি সদুত্তর না দিয়ে রেগে ফোন কেটে দেন।

এ বিষয়ে গোমস্তাপুর থানার‌ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাসের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে। তিনি বলেন, প্রায় ১৫ বছর আগে‌ ওই মেয়ের স্বামী বিদেশে থাকায় সে আরো একজনকে বিয়ে করে ফেলে। এর মধ্যে তাদের তালাকও হয়ে যায়। তারপর ওই ছেলে আরেকটি বিয়ে করে নেয়। হঠাৎ গত মঙ্গলবার তার আগের‌ স্ত্রী, সাবেক স্বামীর বাড়িতে গেলে সামান্য ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটেছে। আমরা বিষয়টি ভালোভাবে খতিয়ে দেখছি।

 

আরও পড়ুন...