স্মার্টফোন গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার

স্মার্টফোন গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার

পিবিএ ডেস্কঃ কথা বলতে বলতে হঠাৎই বন্ধ হয়ে যায় স্মার্টফোন, কখনও বা কথা শেষে দেখা যায় ফোনের শরীর গরম হয়ে গিয়েছে। কেবল কম দামি ফোনেই নয়, দামি ও নামী মোবাইল সংস্থার ফোনেও কিন্তু এই সমস্যা ঘটে। আপনিও কিএমন সমস্যায় পড়েছেন কখনও? এমনটা হলে অনেকেই ধরে নেন ব্যাটারিজনিত সমস্যা। তাই ব্যাটারি বদলে স্মার্টফোন ব্যবহার করেন অনেকে। আবার কেউ বিষয়টাকে বিশেষ গুরুত্ব দেন না। কিন্তু এই সমস্যাকে অবহেলা করলে ফোনে বিস্ফোরণও ঘটতে পারে।

ফোন ব্যবহারের সময় তার শরীর থেকে রেডিয়েশন হয়। তাই সামান্য গরম হওয়া অস্বাভাবিক নয়। সাধারণত, স্মার্টফোন ৩৫-৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত গরম হতে পারে। তবে অব্যবহৃত অবস্থাতেও যদি ফোন ৪০ ডিগ্রি সেলসিযাসের বেশি গরম হয় তবে বুঝবেন, ফোনে সমস্যা আছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, মোটেও শুধু ব্যাটারির কারণে আপনার ফোন গরম হয়ে যায় না। এর নেপথ্যে আরও কিছু প্রযুক্তিগত সমস্যা তো রয়েইছে, সঙ্গে আমাদের ব্যবহারজনিত কিছু কারণও আছে। এই সমস্যার সমাধান জানলেই ফোন গরম হওয়ার হাত থেকে রেহাই মিলবে। দেখে নিন ফোন গরম হওয়ার কারণ ও তার সমাধান।

ব্যাটারি: স্মার্টফোনের মডেলকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে গিয়ে প্রস্তুতকারী সংস্থারা মডেলের উপর নানা পরীক্ষানিরীক্ষা করলেও ব্যাটারির প্রযুক্তিকে তেমন উন্নত করেনি। ফোনের মডেলের উন্নত প্রযুক্তির সঙ্গে পাল্লা দিতে পারে না ব্যাটারিগুলি, সেই দুর্বলতার কারণে স্মার্টফোন গরম হয় বৈকি। সুতরাং ফোন কেনার আগে সেই মোবাইল প্রস্তুতকারী সংস্থার ব্যাটারির গুণমান, পুরনো রেকর্ড এ সব জেনে তবেই মডেল বাছুন।

প্রসেসর: স্মার্টফোন গরম হওয়ার অন্যতম কারণ প্রসেসর গরম হওয়া। স্মার্টফোনের মূল বিষয়ই এর প্রসেসর। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ইলেকট্রন দিয়ে প্রসেসর স্মার্টফোনের শরীরের সঙ্গে লেগে থাকে। ব্যবহারের সময় প্রসেসরের মাধ্যমেই যাবতীয় কাজ হয় বলে ফোন গরম হয়ে যায়। ফোন কেনার আগে জেনে নিন সেই সংস্থা ওই মডেলটির জন্য কতটা শক্তিশালী প্রসেসর দিচ্ছে।

দুর্বল নেটওয়ার্ক: দুর্বল নেটওয়ার্ক ফোন গরমের আর এক কারণ। দুর্বল নেটওয়ার্কের কারণে বার বার সিগন্যাল ক্রমাগত ব্যাহত হওয়ায় ফোনে বেশি চাপ পড়ে। ফলে স্মার্টফোন গরম হয়ে যায়।

অ্যাপস: ব্যবহারজনিত যে সব ভুল কারণে ফোন গরম হয়, তার অন্যতম কারণ অ্যাপস খুলে রাখা। আমরা বেশির ভাগ সময়েই একটি অ্যাপস ঠিক ভাবে বন্ধ না করেই অন্য অ্যাপ খুলি। একসঙ্গে একাধিক অ্যাপ খুলে রাখি ফোনে। এই অ্যাপ এমনিতেই মেমরিতে অনেকটা জায়গা নিয়ে থাকে। তার উপর একাধিক অ্যাপ খোলা রাখলে, তাদের কাজও প্রসেসর চালাতে থাকে ও ফোন গরম হয়ে যায়।

র‌্যাম ও ক্যাশ মেমোরি: প্রতি দিনের অপ্রয়োজনীয় হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেজ ও ছবি সে দিনই ডিলিট করুন। অ্যানিমেশন চালু থাকলে তা বন্ধ করুন। এ সব জমে গিয়ে মোবাইলের মেমরিতে অতিরিক্ত চাপ ফেলে ও ফোন সহজেই গরম করে দেয়।

পিবিএ/এমআর


আরও পড়ুন...

ঘরে বসেই নিজের বিকাশ একাউন্ট খুলুন