হাতের কাছে বই পেয়ে খুশি গ্রামীণ পাঠকগণ

পিবিএ,নরসিংদী: নরসিংদীর পলাশ উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের সহায়তায় তিনদিন ব্যাপী বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের বই মেলা শুরু হয়েছে। ১৫ জানুয়ারী থেকে ১৭ জানুয়ারী তিনদিন ব্যাপী এই মেলার উদ্বোধন করেন পলাশ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ জাবেদ হোসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ফারহানা আলী, ভাইস চেয়ারম্যান কারী উল্লাহ সরকার ও পলাশ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আসাদউল্লাহ মনা সহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারী ও স্কুলের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

 

এ মেলায় পাঠকরা জানিয়েছেন, হাতের নাগালে এ মেলা পেয়ে আজ বিনা খরচে পড়তে খুশি গ্রামীণ পাঠকগণ, আর পছন্দ অনুযায়ী বই ক্রয়ও করার সুযোগ পেয়ে আনন্দ প্রকাশ করে অনেকে। বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা জানিয়েছে, বছরে প্রতিটাদিনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান করতে গিয়ে সকাল সন্ধা কেটে যায়। খুব একটা সময় মেলেনা ঢাকায় যাওয়ার। তাই এ বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে বই মেলা হাতের নাগালে পেয়ে সুযোগটি হাতছাড়া করতে নারাজ শিক্ষার্থীরা। এ মেলায় রয়েছে জাফর ইকবালের বিজ্ঞানের বই, কাজী নজরুল ইসলামের গল্প এবং হুমায়ুন আহমেদের লেখা উপন্যাস সহ বিভিন্ন লেখকদের বই। এ মেলায় স্কুল ছুটি হওয়ার পর শিক্ষার্থীরা বাসায় যাওয়ার আগ পর্যন্ত মেলা ঘুরে ফিরে বই দেখেন ও ক্রয় করছেন। এর মাঝে অনেকে জাফর ইকবালের বিজ্ঞান নিয়ে খেলা ও অপরটি হুমায়ুন আহমেদের উপন্যা অপেক্ষা বইটি ক্রয় করতে দেখা গেছে।

পলাশ বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুলের ২য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী সামিয়া সকালে স্কুলে আসে তার মায়ের সাথে। সে ছুটি হলে আবার মায়ের সাথেই বাসায় যায়। মেলার দিন স্কুল রুটি শেষে মাকে নিয়ে বই মেলায় আসে। বেশ কিছু বই দেখে তার পছন্দ অনুযায়ী কবি বন্দে আলী মিয়ার লেখা ছোটদের শ্রেষ্ঠ গল্প বইটি মা কিনে দেন। সামিয়ার পছন্দও গল্প পড়াই। তাই সে গল্পের বইটিই পছন্দ করে নেয়।

বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের ভ্রাম্যমান বই মেলার দায়িত্বরত কর্মকর্তা মো: আব্দুল মালেক জানান, বই পাঠের মাধ্যমে দেশে পাঠক সৃস্টি করাই এই মেলার মূল লক্ষ্য। পলাশের এই মেলায় অন্যান্য এলাকার তুলনায় বিক্রি সন্তোষজনক। মেলায় শিশুতোষ, রম্যগল্প, বিজ্ঞানের বইয়ের বেশী চাহিদা রয়েছে। তাই পাঠকরা এই বইগুলোই বেশী সংগ্রহ করছে।

পিবিএ/খন্দকার শাহিন/বিএইচ

আরও পড়ুন...