হাসপাতালের জমি বিক্রি করার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে মানববন্ধন


আরিফ মোল্ল্যা,ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের বারবাজারের মষিয়াহাটি গ্রামে মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল নির্মাণের নামে গ্রামের নিরীহ মানুষের কাজ থেকে অল্প টাকায় জমি ক্রয় করেন ডাঃ মোহাম্মদ রওশন আলী। ২০১৭ সালে মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল নির্মাণের নামে ৩২ টি পরিবারের কাজ থেকে তিনি প্রায় সাড়ে ১২ বিঘা জমি ক্রয় করেন এক কোটি ৪ লক্ষ টাকায়। কিন্তু সেই জমিতে মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল নির্মাণ না করে উচ্চ মূল্যে অন্যত্র বিক্রির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয়রা ঘন্টা ব্যাপি এক মানববন্ধনের অয়োজন করে।

মানববন্ধনে অংশনেয়া বাদেডিহি গ্রামের ইছাহাক আলী জানান, তারা দুই ভাই ২০কাঠা জমি ক্রয় করেছিলেন বাড়ি নির্মাণ করার জন্য কিন্তু ডাঃ মোহাম্মদ রওশন আলী তাদের মেডিকেল কলেজ করার কথা বলে তাদের কাজ থেকে অল্প দামে জমি কিনে নেন। ফুলবাড়ি গ্রামের আলেক জানান, এখানে তার ১ বিঘা জমি ছিলো এলাকায় একটি মেডিকেল কলেজ এন্ড সপাতাল হবে তাই তিনি নাম মাত্র দামে জমিটা রওশন আলীর কাছে বিক্রি করেদেন কিন্তু এখন দেখছেন জমির দাম বেশি হওয়াতে ডাঃ মোহাম্মদ রওশন আলী জমিটা অন্যত্র বিক্রি করবেন।

আমাদের সকলের দাবি এখানে যদি মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল না হয় তাহলে আমাদের জমি আমাদের ফিরিয়ে দিক। মষিয়াহাটি গ্রামের তরিকুল ইসলাম জানান, জমি কেনার অগে বলেছিলো হাসপাতাল হবে এবং সেই হাসপাতালে আমাদের চাকরি ব্যাবস্থা করেদিবেন কিন্তু এখন দেখছি বেশি দাম পেয়ে জমিটা অন্যখানে বিক্রি করে দিচ্ছে। ৬০ বছরের রাবেয়া খাতুনের ২৬শতক ও ৭৪ বছরের রাজিয়া খাতুনের দেড় বিঘা জমি ছিলো তারা জানান, এই জমিতে আম, কাঠালের বাগান ছিলো সব গাছ বিক্রিকরে দিয়েছে। আমরা হাসপাতাল চাই তানা হলে আমাদের জমি আমাদের নামে ফেরত দিক।

হাসপাতাল বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক জাহাঙ্গীর হোসেন ও যুগ্ন আহবায়ক ইমদাদুল হকের নেতৃত্বে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মান্ববন্ধনে স্থানীয় নারি-পুরুষ অংশ গ্রহন করে।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...