২৪ ঘণ্টায় কোরবানির বর্জ্য অপসারিত হবে : তাপস

পিবিএ,ঢাকা: ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, ‘কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণে আমরা বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। ২৪ ঘণ্টায় বর্জ্য অপসারিত হবে’।

শনিবার বায়তুল মোকাররমে প্রথম ঈদের জামাত শেষে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে সাংবাদিকদের এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন ডিএসসিসি মেয়র।

তিনি বলেন, কোরবানির বর্জ্য অপসারণে আমরা নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আশা করছি ২৪ ঘণ্টায় পশুর বর্জ্য অপসারণ করতে পারব।

এর আগে, কোরবানির পশুর হাট ও পশুর বর্জ্য অপসারণ সুষ্ঠুভাবে সম্পাদন করতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) পরিবহন বিভাগের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী, ড্রাইভার, মেকানিক ও অপারেটরদের ৩১ জুলাই থেকে আগামী ৩ আগস্ট পর্যন্ত সবধরনের ছুটি বাতিল করা হয়।

এছাড়াও ডিএসসিসির সচিব স্বাক্ষরিত আলাদা দুটি অফিস আদেশে নগরভবনের শীতলক্ষ্যা হলে কন্ট্রোল রুম স্থাপন ও ডিএসসিসির মাঠ পর্যায়ে বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম সরেজমিনে তদারকি করতে ১০টি অঞ্চলের জন্য ১০টি টিম গঠন করা হয়েছে।

ঈদের দিন অর্থাৎ ১ আগস্ট থেকে আগামী ৪ আগস্ট ২টা পর্যন্ত ডিএসসিসির ১০টি ওয়ার্ডের জন্য গঠিত টিম ১০টি কোরবানির পশুর হাট ও কোরবানি সৃষ্ট বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত কাজ মাঠ পর্যায়ে সচিত্র মনিটরিং করবে এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেবেন। আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তারা প্রতিটি টিমের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করবেন।

কোরবানির পশুর হাটের বর্জ্য অপসারণে নগর ভবনের শীতলক্ষ্যা হলে গত ২৯ জুলাই থেকে একটি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। কন্ট্রোল রুমের মোবাইল নম্বরটি হলো ০১৭০৯৯০০৭০৫।

আগামী ৪ আগস্ট দুপুর দুইটা পর্যন্ত কন্ট্রোল রুমের কার্যক্রম চলমান থাকবে। কন্ট্রোল রুমে বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ৩ শিফটে দায়িত্ব পালন করবেন। দায়িত্বপ্রাপ্তরা মাঠ পর্যায়ে চলমান বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম তদারকি করবেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকার নাগরিকদের বর্জ্য অপসারণ সংক্রান্ত তথ্য সরাসরি ডিএসসিসিকে জানাতে কন্ট্রোল রুমে ফোন করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

ডিএসসিসি অধিভুক্ত এলাকার যে কোনো নাগরিক কন্ট্রোল রুমের নম্বরে ফোন করে কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ সংক্রান্ত অভিযোগ জানাতে পারবেন এবং অভিযোগের সত্যতা যাচাই সাপেক্ষে তা অপসারণে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিবিএ/এইচএস

আরও পড়ুন...