৪০৩২ জনকে নিয়োগ দেবে মাউশি

পিবিএ ডেস্ক: মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) এবং এর আওতাধীন অফিস বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর রাজস্ব খাতভুক্ত ২৮ ধরনের পদে ৪০৩২ জনকে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। সবচেয়ে বেশিসংখ্যক নিয়োগ দেওয়া হবে অফিস সহায়ক (১৯৩২) ও অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক (৫১৩) পদে। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া হবে।

যেভাবে পরীক্ষা
নিয়োগ পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) রূপক রায় কালের কণ্ঠকে বলেন, আবেদনপ্রক্রিয়া শেষ হবে ৩০ নভেম্বর ২০২০। এরপর যাচাই-বাছাই করে প্রার্থীদের তালিকা তৈরি করা হবে। পরীক্ষার প্রক্রিয়া, তারিখ ও সময়সূচি নিয়ে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এসব ব্যাপারে মিটিংয়ের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে বিগত বছরগুলোতে অন্যান্য নিয়োগ পরীক্ষার মতোই প্রিলিমিনারি, লিখিত, ব্যাবহারিক (কিছু কিছু পদে), ভাইভা পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হয়েছিল।

পদের নাম ও পদসংখ্যা
১. প্রদর্শক (পদার্থ) : ১০৯টি, ২. প্রদর্শক (রসায়ন) : ১২০টি, ৩. প্রদর্শক (জীববিজ্ঞান) : ৩১টি, ৪. প্রদর্শক (প্রাণিবিদ্যা) : ১০৯টি, ৫. প্রদর্শক (উদ্ভিদবিদ্যা) : ৯৬টি, ৬. প্রদর্শক (ভূগোল) : ১৩টি, ৭. প্রদর্শক (মৃত্তিকাবিজ্ঞান) : ৫টি, ৮. প্রদর্শক (গণিত) : ২২টি, ৯. প্রদর্শক (গার্হস্থ্য) : ৮টি, ১০. প্রদর্শক (কৃষি) : ১টি, ১১. গবেষণা সহকারী (কলেজ) : ২১টি, ১২. সহকারী গ্রন্থাগারিক কাম ক্যাটালগার : ৬৯টি, ১৩. ল্যাবরেটরি সহকারী : ৬টি, ১৪. সাঁটলিপিকার-কাম-কম্পিউটার অপারেটর : ৫টি, ১৫. সাঁটমুদ্রাক্ষরিক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর : ৪টি, ১৬. উচ্চমান সহকারী : ৮৫টি, ১৭. অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক : ৫১৩টি, ১৮. ক্যাশিয়ার/স্টোরকিপার : ৩৪টি, ১৯. হিসাব সহকারী : ১০৬টি, ২০. ক্যাশিয়ার : ৮৫টি, ২১.

স্টোরকিপার : ৫০টি, ২২. মেকানিক-কাম-ইলেকট্রিশিয়ান : ৩৩টি, ২৩. গাড়িচালক : ১১টি, ২৪. বুক সর্টার : ৪৬টি, ২৫. অফিস সহায়ক : ১৯৩২টি, ২৬. নিরাপত্তা প্রহরী : ২৫৫টি, ২৭.

মালি : ১০০টি, ২৮. পরিচ্ছন্নতাকর্মী : ১৬৩টি।

আবেদনের যোগ্যতা
প্রতিটি পদে আবেদনের জন্য যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা ও বয়সসীমা আলাদা। পদভেদে পঞ্চম শ্রেণি/সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থী থেকে শুরু করে স্নাতক (সম্মান), বিবিএ, স্নাতকোত্তর উত্তীর্ণ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। পদভেদে আবেদনের যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা ও বয়সসীমার শর্তাবলি জানতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখুন এই লিংক থেকে—

http://www.dshe.gov.bd/site/view/notices

আবেদনের বয়সসীমা:
প্রার্থীর বয়স ১ নভেম্বর ২০২০ তারিখে সর্বনিম্ন ১৮ বছর এবং ২৫ মার্চ ২০২০ তারিখের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩০ বছর হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এবং শারীরিক প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে বয়স ১৮ থেকে ৩২ বছর। বয়স প্রমাণের জন্য এফিডেভিট গ্রহণযোগ্য নয়।

আবেদনের নিয়ম:
আগ্রহী প্রার্থীরা (http://dshe.teletalk.com.bd) ওয়েবসাইট থেকে আবেদনপত্র পূরণ করে আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত জমা দিতে পারবেন। ওই সময়ের মধ্য ইউজার আইডিপ্রাপ্ত প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদনপত্র সাবমিটের সময় থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্য টেলিটক অপারেটর দিয়ে এসএমএসের মাধ্যমে পরীক্ষার ফি জমা দিতে হবে।

পিবিএ/এমএসএম

আরও পড়ুন...